ইনোভেশন শোকেসিং এ ডিপিডিসি’র ২য় স্থান অর্জন

বিদ্যুৎ বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত ইনোভেশন শোকেসিং এ বিদ্যুৎ বিভাগের আওতাধীন সকল প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ডিপিডিসি’র আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্স বেজড স্মার্ট কাস্টমার এসিস্ট্যান্ট চ্যাটবট ‘বিদ্যুৎ বন্ধু’ ২য় স্থান অর্জন করেছে। রবিবার (১৯ মে) অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হয়েছে।

‘বিদ্যুৎ বন্ধু’ চ্যাটবটের মাধ্যমে খুব সহজেই বিদ্যুৎ সংক্রান্ত যেকোন সেবা গ্রহণ ও অভিযোগ দাখিল করা যায়। ডিপিডিসি’র গ্রাহকগণ যেকোন কম্পিউটার বা মোবাইল ব্যবহার করে ডিপিডিসি’র ওয়েবসাইট (www.dpdc.gov.bd) থেকে বাংলা এবং ইংরেজি ভাষায় এই সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন দপ্তর/সংস্থা হতে ২৪টি ইনোভেশন উদ্যোগ প্রদর্শিত হয়েছে। নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ, গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করা ও বিদ্যুৎ উৎপাদনের বিকল্প ও সহজলভ্য উৎস খুঁজে বের করা ইনোভেশন শোকেসিং এর লক্ষ্য। ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে সরকারি সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে ইনোভেশনের বিকল্প নেই।

বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়ির সচিব মোঃ হাবিবুর রহমান ডিপিডিসি’র ইনোভেশন শোকেসিং এ বিজয়ীদের ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করেন। ডিপিডিসি’র পক্ষে জেনারেল ম্যানেজার (আইসিটি) রবিউল হাসান ক্রেস্ট ও সনদ গ্রহণ করেন। সিনিয়র সচিব মো: হাবিবুর রহমান তাঁর বক্তব্যে বলেন ২০৪১ সালের লক্ষ্য অর্জন করতে হলে নিজস্ব প্রযুক্তির উদ্ভাবন বা ব্যবহৃত প্রযুক্তির নিজস্ব ভার্সন সৃজন করতে হবে।

বিদ্যুৎ বিভাগের প্রধান ইনোভেশন কর্মকর্তা নিরোদ চন্দ্র মন্ডলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো: হুমায়ুন কবির এবং বিদ্যুৎ বিভাগ ও এর আওতাধীন প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

অর্থসূচক/

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.