বৃষ্টিতে ভেজার পর সুস্থতা নিশ্চিতে যা যা করবেন

চলছে বৈশাখ মাস। এখন প্রতিনিয়ত চলবে বৃষ্টির আনাগোনা। ঘরের বৃষ্টি উপভোগ্য হলেও বাইরে বের হলেই বিড়ম্বনার। বৃষ্টি হলেই রাস্তায় কাদাপানি। আর সঙ্গে ছাতা না থাকলে অসুস্থ হতে পারেন। বৃষ্টিতে ভেজার কারণে অনেকেই ঠান্ডা-সর্দি কিংবা ঠান্ডা-জ্বরে ভোগেন। বর্ষা মৌসুমের প্রথম বৃষ্টিতে না ভেজার চেষ্টা করতে হবে কারণ প্রথম বৃষ্টির বাতাসে নানা দূষণ ধুয়ে যায়। এ কারণে তখন বৃষ্টিতে ভিজলে জীবাণু শরীরে এসে সংক্রমণ ঘটাতে পারে। তাই বছরের প্রথম বৃষ্টি এড়িয়ে যাবেন। এছাড়া বৃষ্টিতে ভেজার পর শারীরিক সুস্থতা নিশ্চিত করতে কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

১. বৃষ্টিতে ভেজার পর গোসল করা খুব দরকার। তাই বৃষ্টিতে ভিজে গেলে গরম পানি দিয়ে গোসল করুন। তাহলে জীবাণু ও সংক্রমণ থেকে রেহাই পাবেন।

২. বৃষ্টিতে ভেজার পর দ্রুত কাপড় পরিবর্তন করুন। কারণ ভেজা কাপড় দীর্ঘক্ষণ পরে থাকলে ফ্লু সংক্রমণ হতে পারে। সেই সঙ্গে নিউমোনিয়া হওয়ার ঝুঁকিও আছে।

৩. যত দ্রুত সম্ভব বৃষ্টিতে ভেজার পর পা ধুয়ে নিতে হবে। বৃষ্টির পানির সঙ্গে মিশে থাকা রাস্তার সব নোংরা জীবাণু পায়ে লেগে থাকতে পারে।

৪. বৃষ্টিতে ভেজার পর চুল ভেজা থাকলে মাথাব্যথা হতে পারে। তাই দ্রুত ব্লো ড্রায়ার ব্যবহার করে চুল শুকিয়ে নিন। বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে সূর্যাস্তের পর গোসল করবেন না, তাহলে ঠান্ডা-কাশি হওয়ার সংক্রমণ বাড়তে পারে।

৫. ভালো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন গোসলের পর। বৃষ্টিতে ভিজলে ত্বক খুব শুষ্ক হয়ে যায়। এর ফলে শুষ্ক ত্বকে চুলকানি হতে পারে। তাই বডি অয়েল বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

অর্থসূচক/ এইচএআই

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.