খুলল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

তাপপ্রবাহের কারণে নতুন করে চার বিভাগের বেশ কয়েকটি জেলায় জারি করা হয়েছে ‘হিট অ্যালার্ট’। এরইমধ্যে আজ (৫ মে) দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে।

শনিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মাধ্যমিক স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আজ রোববার থেকে খোলা রাখা হবে বলে জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সংশ্লিষ্ট সবার অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ, শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে গত ২৫ এপ্রিল প্রকাশিত প্রজ্ঞাপনের শর্ত পালন সাপেক্ষে রোববার (৫ মে) থেকে দেশের সব মাধ্যমিক স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠদান কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।’

এদিকে গতকাল আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমান জানান, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে চলমান মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ আজ রোববার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। জলীয়বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিকর পরিস্থিতি অব্যাহত থাকতে পারে।

এর আগে ঈদুল ফিতর ও নববর্ষের ছুটি শেষে গত ২১ এপ্রিল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কথা থাকলেও তাপপ্রবাহের কারণে তা এক সপ্তাহ পিছিয়ে ২৮ এপ্রিল খোলা হয়। তবে, দেশজুড়ে চলা মাঝারি থেকে তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে গত ২৯ এপ্রিল থেকে ২ মে পর্যন্ত ফের বন্ধ থাকে দেশের বিভিন্ন জেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর গত রোববার থেকে সারা দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ক্লাস শুরু হয়। শুরুর দিনেই প্রচণ্ড গরমে দেশের কয়েকটি স্থানে শিক্ষক–শিক্ষার্থীদের অসুস্থ হয়ে পড়ার খবর পাওয়া যায়। পরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত জানায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে আজ রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে হিট অ্যালার্ট জারি থাকলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলেছে।

এদিকে, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাপপ্রবাহের কারণে শিশুদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে ২ মে পর্যন্ত প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ রাখা হয়েছিল। শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক বন্ধের দিন। তবে আজ রোববার থেকে আবারও ক্লাস শুরু হয়। তবে, তাপপ্রবাহ এখনও চলমান থাকায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের দেওয়া শর্তগুলো মেনে বিদ্যালয় পরিচালনা করতে হবে।

এর আগে তাপপ্রবাহে প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলায় মন্ত্রণালয়ের দেওয়া নির্দেশনাগুলো হলো—এক শিফটে পরিচালিত বিদ্যালয়গুলো সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলবে। দুই শিফটে পরিচালিত বিদ্যালয়ে প্রথম শিফট সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ৯টা ও দ্বিতীয় শিফট ৯টা ৪৫ থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলবে। তাপপ্রবাহ সহনীয় পর্যায়ে না আসা পর্যন্ত অ্যাসেম্বলি বন্ধ থাকবে। পাশাপাশি প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো বন্ধই থাকছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.