টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলবেন না স্টোকস

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলবেন না বেন স্টোকস। ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ইংলিশ এই অলরাউন্ডার আগামী জুনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠেয় এই বিশ্বকাপ খেলতে আগ্রহী নন।

২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে শিরোপা জেতাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন স্টোকস। পাকিস্তানের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচে চাপের মুখে দারুণ একটি হাফ সেঞ্চুরি হাঁকান তিনি। এবার অবশ্য হাঁটুর চোট কাটিয়ে উঠতে না পারায় বিশ্বকাপ থেকে সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাটার হিসেবেই খেলতে দেখা যেত স্টোকসকে। ভবিষ্যতে পূর্ণাঙ্গ অলরাউন্ডার হিসেবে ফেরার দিকেই লক্ষ্য তার। এ কারণে কাউন্টি দল ডারহামের হয়ে প্রথম শ্রেণিতে খেলবেন স্টোকস।

ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) প্রকাশিত বিবৃতিতে স্টোকস বলেন, ‘আমি কঠোর পরিশ্রম করছি এবং ক্রিকেটের সব ফরম্যাটে একজন অলরাউন্ডার হিসাবে পরিপূর্ণ ভূমিকা পালন করার জন্য আমার বোলিং ফিটনেস ফিরিয়ে আনতে মনোনিবেশ করছি।’

এর আগে আইপিএল থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক। তিনি আরও বলেন, ‘আইপিএল এবং বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়া আশা করি আমার জন্য একটি আত্মত্যাগ বলে বিবেচিত হবে। যা আমাকে এমন একজন অলরাউন্ডার বানাবে, যা আমি অদূর ভবিষ্যতে হতে চাই৷’

২০২৩ সালের আইপিএলে হাঁটুর ইনজুরিতে পড়ায় সেই টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন স্টোকস। এরপর অবসর ভাঙিয়ে তাকে ওয়ানডে বিশ্বকাপে ফেরায় ইসিবি। সেই সময় অবশ্য তার অস্ত্রোপচার করানোর কথা ছিল। পরে আর অস্ত্রোপচারই করাননি এই অলরাউন্ডার।

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.