ক্ষুদ্র ঋণের চেয়ে বড় ঋণগুলোতে খেলাপি বেশি হয়: মাশরুর আরিফিন

দেশে খুদ্র ঋণের চেয়ে বড় ঋণ গুলোতে বরাবরের মতই খেলাপি ঋণের হার বেশি। এসব ঋণের খেলাপি ১০ থেকে ২০ শতাংশ। আর পুনঃ তফসিল হিসাব করলে দেশের মোট খেলাপি বা মন্দ ঋণ ৩০ শতাংশ ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন সিটি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাশরুর আরিফিন।

সোমবার (১ এপ্রিল) সিটি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে বিকাশ অ্যাপে সিটি ব্যাংকের পে-লেটার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মাশরুর আরিফিন বলেন, ক্ষুদ্র ঋণের চেয়ে বড় ঋণগুলোতে দেশে খেলাপি বেশি হয়। এজন্য সিটি ব্যাংক বরাবরের মতোই ক্ষুদ্র ঋণে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। আমরা ইতোমধ্যে বিকাশের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণের কাজ করে যাচ্ছি। এর মাধ্যমে ইতোমধ্যে ৭৪২ কোটি টাকার ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। এতে খেলাপি ঋণের হার মাত্র শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ।

বিকাশ-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদীর বলেন, ‘ব্যাংকিং সেবার বাইরে থাকা মানুষের জন্য ব্যাংকের ঋণ সহজলভ্য করেছে বিকাশ। এই জনগোষ্ঠীর নানান রকম জরুরি কেনাকাটার প্রয়োজনকে বিবেচনায় রেখে এই যৌথ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, যা ক্যাশবিহীন লেনদেনের ইকোসিস্টেম তৈরিতে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে। যেমন-একজন কৃষক আজ সার কিনতে এসে অর্থাভাবে জরুরী কাঁচামালের জন্য তার কৃষি কাজ বন্ধ রাখবেন না। এই সেবার ফলে তিনি কাঁচামাল হাতে পাবেন, যা তার উৎপাদনশীলতা অটুট রাখবে। পে-লেটার সেবা গ্রাহক এবং মার্চেন্টকে ডিজিটাল পেমেন্টে আরো উদ্বুদ্ধ করবে এবং অভ্যস্ততা বাড়াবে।

জরুরি প্রয়োজনে কেনাকাটাকে আরো সহজ করে দিতে প্রথমবারের মত ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণের আওতায় ‘পে-লেটার’ নামের বিশেষ জামানতবিহীন ক্ষুদ্র ঋণ সেবা যৌথভাবে চালু করলো সিটি ব্যাংক ও বিকাশ। অ্যাকাউন্টে টাকা না থাকলেও গ্রাহক এখন প্রয়োজনীয় পণ্য কিনে বিকাশ অ্যাপ থেকেই সিটি ব্যাংকের এই বিশেষ ঋণ নিয়ে সরাসরি মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন। সাত দিনের মধ্যে এই অর্থ পরিশোধ করলে গ্রাহককে কোন ইন্টারেস্ট দিতে হবে না।

অর্থসূচক/এমএইচ/এমএস

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.