ব্যর্থ বাংলাদেশের প্রাপ্তি শুধু চান্দিমাল

চার উইকেটে ৩১৪ রান নিয়ে চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শুরু করেছে শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের বিপক্ষে ধীরে ধীরে রানের পাহাড় গড়ছে দলটি। প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনও ব্যর্থতায় পার করেছে বাংলাদেশের বোলাররা। দিন শুরু করার আধঘণ্টায়ও কোনো সাফল্য পায়নি তারা। আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটার ধনঞ্জয়া ডি সিলভা এবং দিনেশ চান্দিমাল পঞ্চাশ রানের জুটি স্পর্শ করে ফেলেন।

সময় এগিয়ে যেতে যেতে দুজনই তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। ৮৭ বলে হাফ সেঞ্চুরি করেন চান্দিমাল। বাংলাদেশের বিপক্ষে এটি তার চতুর্থ হাফ সেঞ্চুরি। আর সব মিলিয়ে এটি তার ২৬তম হাফ সেঞ্চুরি। দ্বিতীয় দিন অবশ্য ভাগ্যের কিছুটা ছোঁয়া ছিল চান্দিমালের ইনিংসে।

খালেদ আহমেদ ও হাসান মাহমুদের ভিন্ন ভিন্ন ওভারে অন্তত তিনবার স্লিপের দিকে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। যদিও বলগুলো ঠিক স্লিপ পর্যন্ত না পৌছানোয় আউট হননি তিনি। সেভাবে সুযোগও পায়নি বাংলাদেশের ফিল্ডাররা। চান্দিমালের পর হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভাও। সিলেট টেস্টে দুই ইনিংসে সেঞ্চুরির পর এ দিন ৭০ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। টেস্ট ক্যারিয়ারের এটি তার ১৪তম হাফ সেঞ্চুরি। বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয়তম।

এ দিন দ্বিতীয় ঘণ্টার শুরুতেই সাকিব আল হাসানের হাত ধরে সফলতা পায় বাংলাদেশ। অফ স্টাম্পের বাইরে ফুল লেংথে করা ডেলিভারিতে চান্দিমালকে কট বিহাইন্ড করেন তিনি। চান্দিমাল রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলতে চাইলেও ব্যাট-বল এক করতে পারেননি।

চান্দিমালের বিদায়ে ৮৯ রানের এই জুটি ভাঙে। উইকেটে আছেন কামিন্দু মেন্ডিস। সিলেট টেস্টের দুই ইনিংসেই দেড়শ ছোঁয়া জুটি গড়েন ধনঞ্জয়া ও কামিন্দু। এখন উইকেটে আছেন তারাই। ১০৮ বলে ৭০ রান করে উইকেটে আছেন ধনঞ্জয়া। কামিন্দু ৪১ বলে ১৭ রানে আছেন। শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৫ উইকেটে ৪১১ রান।

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.