ঋণের সুদহারের ‘করিডোর’ কমালো বাংলাদেশ ব্যাংক

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) পরামর্শে ঋণের সর্বোচ্চ সুদহারের সীমা তুলে দিয়ে স্মার্ট’ রেট চালু করেছিলো বাংলাদেশ ব্যাংক। এবার ঋণের সুদহারের সেই ‘করিডোর’ দশমিক ২৫ শতাংশ কমিয়েছে আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। অর্থাৎ এখন থেকে দেশের ব্যাংকগুলো ৬ মাস মেয়াদি ট্রেজারি বিলের গড় রেটের (স্মার্ট রেট) সাথে সর্বোচ্চ ৩ দশমিক ৫০ শতাংশ সুদ নিতে পারবেন।

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তথ্য অনুযায়ী, এখন থেকে ব্যাংকগুলো ঋণের সুদহার নির্ধারণের ক্ষেত্রে স্মার্টের সাথে সর্বোচ্চ ৩ দশমিক ৫০ শতাংশ মার্জিন যোগ করতে পারবে। এর আগে যা ছিলো ৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ। এখন থেকে সব নতুন ঋণ বিতরণের ক্ষেত্রে এই সুদহার কার্যকর হবে বলেও জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

অর্থনীতিবিদরা বলেছেন, করিডোর রেট কমলেও ব্যাংক ঋণের সুদের হার কমার সম্ভাবনা কম। কারণ মূল্যস্ফীতিসহ নানা কারণে সিক্স মান্থ মুভিং এভারেজ রেট অব ট্রেজারি বিল (স্মার্ট রেট) বেড়েছে। এতে মার্চ থেকে ঋণের সুদের হার বেড়ে দাঁড়াতে পারে ১৩ দশমিক ১১ শতাংশের বেশি। এক কথায় করিডোর রেট কমলেও স্মার্ট রেট বেড়ে যাওয়ায় স্বস্তায় ঋণ পাবে না গ্রাহকরা।

বাংলাদেশ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, মূল্যস্ফীতি হ্রাসের নিমিত্ত মনিটারি পলিসি কমিটি কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে নীতি সুদহার বৃদ্ধির প্রভাব ইতোমধ্যে স্মার্ট রেটের উপর প্রতিফলিত হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে ঋণের সুদহার মনিটারি পলিসির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করা এবং অর্থনৈতিক গতিশীলতা বজায় রাখতে ঋণের সুদহার নির্ধারণের ক্ষেত্রে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, প্রি-শিপমেন্ট রপ্তানি ঋণ এবং কৃষি ও পল্লী ঋণের সুদহার নির্ধারণের ক্ষেত্রে স্মার্টের সাথে সর্বোচ্চ ২ দশমিক ৫০ শতাংশ মার্জিন যোগ করে সুদহার নির্ধারণ করতে হবে। যা আগে ছিলো ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

আইএমএফ’র পরামর্শে ঋণের সর্বোচ্চ সুদহার ৯ শতাংশ থেকে সরিয়ে নিয়ে গত জুলাই থেকে ‘স্মার্ট’ রেট চালু করেছিলো বাংলাদেশ ব্যাংক, যা চলতি অর্থবছরের প্রথমার্ধের মুদ্রানীতিতে (জুলাই-ডিসেম্বর) জানিয়েছিল আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৮২ দিন মেয়াদি ট্রেজারি বিলের বাজারসুদকে ভিত্তি ধরে একটি রেফারেন্স রেট নির্ণয় করা হয়, যেটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘স্মার্ট’।

অর্থসূচক/এমএইচ/এমএস

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.