পাকিস্তানে প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী মরিয়ম নওয়াজ

পাকিস্তানের তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) প্রাদেশিক পরিষদের সদস্যরা তাকে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত করেন। এর মাধ্যমে মরিয়ম পাঞ্জাব তথা পাকিস্তানের সাত দশকের ইতিহাসে প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন। খবর জিও নিউজের।

মরিয়ম বর্তমানে পিএমএল-এনের সিনিয়র সহসভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি নওয়াজ শরিফের বড় মেয়ে এবং শাহবাজ শরিফের ভাতিজি। তিনি পাঞ্জাব থেকে শরিফ পরিবারের চতুর্থ মুখ্যমন্ত্রী ও এমপি। একই সঙ্গে তিনি এই পরিবারের প্রথম নারী এমপিও।

জিও নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সোমবার পাঞ্জাবের প্রাদেশিক পরিষদে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এদিন পরিষদের ২২০ জন এমপি মরিয়মকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন। সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিল (এসআইসি) নির্বাচন বর্জন করায় তার প্রতিদ্বন্দ্বী রানা আফতাব আহমাদ কোনো ভোট পাননি। রানা আফতাব সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিলের (এসআইসি) প্রার্থী ছিলেন।

পরিষদের স্পিকার মালিক আহমদ খান বলেন, ভোট গণনা শেষ হয়েছে। মরিয়ম নওয়াজ ২২০ ভোট পেয়েছেন। রানা আফতাব কোনো ভোট পাননি।

নির্বাচিত হওয়ার পর মরিয়ম বলেন, এটি প্রতিটি মা, বোন ও মেয়ের সম্মান, একজন নারী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। আমি দোয়া করি, এ ধারা যেন অব্যাহত থাকে। আরও নারী সংসদের নেত্রী হিসেবে আমার স্থান গ্রহণ করেন।

তিনি বলেন, আমি চেয়েছিলাম এই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় বিরোধী দল উপস্থিত থাকুক। আমার প্রতিশোধ নেওয়ার ইচ্ছে নেই। এই যাত্রায় আমি নিজে গ্রেপ্তার হয়েছি; আমার বাবার গ্রেপ্তার হয়েছেন। আমার মায়ের মৃত্যু হয়েছে।

অর্থসূচক/এমএস

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.