নিষেধাজ্ঞা উঠল মুজিব-ফারুকিদের

গত মাসে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি) ২ বছরের জন্য মুজিব উর রহমান, নাভিন উল হক ও ফজলহক ফারুকির বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলা নিষিদ্ধ করেছিল। যদিও এক সপ্তাহের মধ্যেই সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে আফগান ক্রিকেট বোর্ড।

এর ফলে দ্রুতই এই তিন ক্রিকেটারকে বার্ষিক চুক্তিতে যোগ করা হচ্ছে। এমনকি তাদের বিদেশি লিগে খেলার নিষেধাজ্ঞাও উঠিয়ে নেয়া হয়েছে। নিষেধাজ্ঞার পরই এই তিন ক্রিকেটার দেশের হয়ে খেলার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। এরপর তাদের প্রতি সদয় হয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলার জন্য ‘সীমিত’ সংখ্যক এনওসি দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে তারা। নিষেধাজ্ঞা শিথিল করলেও তাদেরকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে জাতীয় দলের খেলাগুলোকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার পরামর্শ দেয়ান হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান মিরওয়াইজ আশরাফ বলেছেন, ‘আমরা সত্যিই আশা করি যে খেলোয়াড়রা ভবিষ্যতে একই ধরনের অসুবিধা এড়াতে পারে, কারণ আমরা আশা করি যে তারা সম্ভাব্য সর্বোত্তম পদ্ধতিতে দেশের প্রতিনিধিত্ব করবে। এসিবি এবং নিয়ম আমাদের সবার উপরে এবং এটি অনুসরণ করা গুরুত্বপূর্ণ। নিয়ম, যেহেতু এই বিষয়ে কারো জন্য কোনো ব্যতিক্রম নেই। তবে, একই ধরনের ঘটনাগুলো আরও কঠোরভাবে মোকাবেলা করা হবে, কারণ আমরা আফগানিস্তান ক্রিকেট এবং সংস্থার সুনামকে অগ্রাধিকার দিই।’

মুজিব-নাভিন ও ফারুকির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় সবচেয়ে বিপদে পড়েছিল তাদের আইপিএলের দলগুলো। তারা খেলতে না পারলে এই ক্রিকেটারেরই বিকল্প খুঁজে নিতে হতো ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে। আইপিএলের গত আসরের নিলাম থেকে মুজিবকে কলকাতা নাইট রাইডার্স, ফারুকিকে সানরাইজার্স হায়দরবাদ দলে নিয়েছে। এ ছাড়া নাভিনকে রিটেইন করেছে তার আগের ফ্র্যাঞ্চাইজি লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস।

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.