ধূমপানে রাশ টানার নিয়ম উঠছে নিউজিল্যান্ডে

নিউজিল্যান্ডে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের ধূমপান বন্ধের নিয়ম উঠে যাচ্ছে। সোমবার এই ঘোষণা করেছেন নতুন প্রধানমন্ত্রী লুক্সন। সাবেক সরকারের দাবি ছিল, স্বাস্থ্যের কারণে তারা সিগারেট বিক্রির উপর কড়াকড়ি করেছে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্দের্নের আমলে ঠিক হয়েছিল, ২০০৮ সালের পর যাদের জন্ম, তাদের কাছে সিগারেট বিক্রি করা যাবে না।

কিন্তু লুক্সন জানিয়ে দিয়েছেন, এর ফলে সিগারেটের কালোবাজারি বাড়া ছাড়া আর কোনো কাজ হবে না। তাই তিনি এই নিয়ম বাতিল করতে চান।

সাবেক লেবার পার্টির সরকারের বক্তব্য ছিল, অপ্রাপ্তবয়স্কদের কাছে সিগারেট বিক্রির উপর এই নিষেধাজ্ঞার অর্থ হলো, প্রচুর মানুষের প্রাণ বাঁচানো এবং ধূমপানের ফলে যে অসুখ করে, তার হাত থেকে ও বিপুল চিকিৎসা খরচের হাত থেকে প্রচুর মানুষকে বাঁচানো।

এছাড়াও তামাকের মধ্যে নিকোটিনের পরিমাণ আরো কম করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বলা হয়, সারা দেশে মাত্র ছয়শটি দোকানকে সিগারেট বিক্রির অনুমতি দেয়া হবে। আগে ছয় হাজার দোকানে সিগারেট বিক্রি হত।

লুক্সনের ন্যাশনাল পার্টি এখন নিউজিল্যান্ড ফার্স্ট পার্টির সঙ্গে জোট করে সরকারে এসেছে। তারা ঠিক করেছে, অপ্রাপ্তবয়স্কদের কাছে সিগারেট বিক্রি নিকোটিনের পরিমাণ কম করা, দোকানের সংখ্যা কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত বাতিল করা হবে।

নতুন অর্থমন্ত্রী নিকোলা উইলিস বলছেন, সরকার কর কম করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে রাজস্বের যে ক্ষতি হবে, তার কিছুটা সিগারেটের উপর বসানো করের থেকে যে অর্থ আসবে, তা দিয়ে পূরণ হবে। তবে লুক্সন বলেছেন, রাজস্ব বাড়ানোর জন্য এই সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে না। তার প্রধান কাজ হবে মূল্যবৃদ্ধিতে রাশ টানা। সূত্র: ডিডাব্লিউ, এপি, এএফপি, রয়টার্স

অর্থসূচক/এএইচআর

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.