ফ্ল্যাট থেকে বাবা-মা-সন্তানের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

রাজধানী ঢাকার আশুলিয়ার একটি ফ্ল্যাট থেকে বাবা-মা ও তাদের সন্তানের (১২) গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অন্তত তিন দিন আগে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা পুলিশের। তবে হত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে আশুলিয়ার জামগড়া মহল্লার ফকির বাড়ির মোড় এলাকার মেহেদী হাসানের মালিকানাধীন ছয়তলা ভবনের চতুর্থ তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন- ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ থানার লোহাগড়া গ্রামের মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে মোক্তার হোসেন (৫০), তার স্ত্রী শাহিদা বেগম (৪০) ও তাদের ছেলে মেহেদী হাসান জয় (১২)। শাহিদার গ্রামের বাড়ি রাজশাহী জেলায়। স্বামী-স্ত্রী দুজনেই আশুলিয়ায় পৃথক পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন।

স্থানীয়রা জানান, গতকাল শনিবার রাতে ফ্ল্যাট থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে আশপাশের বাসিন্দাদের সন্দেহ হয়। রাতে দরজা খুলে একটি কক্ষের বিছানার ওপর মা শাহিদা বেগম ও ছেলে জয়ের রক্তমাখা মরদেহ এবং পাশের ঘরে মোক্তার হোসেনের মরদেহ পাওয়া যায়।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জোহাব আলী বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে তিন দিন আগে তাদের তাদের হত্যা করা হয়েছে।’

রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান। সাংবাদিকদের তিনি জানান, হত্যাকাণ্ডের কারণ এবং জড়িতদের খুঁজে বের করতে ইতিমধ্যে পুলিশের পাশাপাশি পিবিআই, সিআইডি ও গোয়েন্দা পুলিশ মাঠে নেমেছে।

মনতদন্তের জন্য নিহতদের মরদেহ রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

মন্তব্য
Loading...