বাংলাদেশকে হারিয়ে ফাইনালে ভারত

হাংজুতে এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশ নারী দলকে আট উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সহজেই ফাইনাল নিশ্চিত করল ভারত। যদিও বৃষ্টির আশঙ্কা ছিল পুরো ম্যাচে। কোনোভাবে খেলাটি পরিত্যক্ত হলে র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে যাওয়া ভারত নারী দলই ফাইনাল খেলত। তবে ম্যাচটি হওয়ায় অন্য কোনও সমীকরণে যেতে হলো না।

টি-টোয়েন্টি সংস্করণের এই সেমিফাইনাল ম্যাচে বাংলাদেশকে মাত্র ৫১ রানে অলআউট করে ভারত। লক্ষ্যে পৌঁছানোর পরও আরও ৭০ বল বাকি ছিল তাদের ইনিংসের! অর্থাৎ নিগার সুলতানার দল ম্যাচে কোনোপ্রকার প্রতিদ্বন্দ্বিতাই গড়ে তুলতে পারেনি।

ঝেইজ্যাং ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশ দল শুরু থেকেই উইকেট হারাতে থাকে। ভারতের স্পিনার পূজা ভাস্ট্রেটরের বোলিংয়ের সামনে এবারেই দাঁড়াতে পারেনি তারা। পুরো ইনিংসে শূন্য রানে আউট হয়েছেন ৫ ব্যাটার। দলীয় সর্বোচ্চ ১২ রান করে ফিরে গেছেন অধিনায়ক নিগার। এ ছাড়া সোবহানা মোস্তারি করেন ৮ রান। বাংলাদেশের ইনিংসে দুই অঙ্ক ছুঁতে পেরেছেন শুধু নিগারই। অন্যদের রান এক অঙ্কের!

ভারতীয় বোলারদের সম্মিলিত তোপে ১৭.৫ ওভারে অলআউট হয় বাংলাদেশ। পূজা ১৭ রান দিয়ে নেন চার উইকেট। সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে তেমন কোনো সমসায় পড়েনি ভারত। ১৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় দলটি। অধিনায়ক ও উদ্বোধনী ব্যাটার শ্রীনিবাস করেছেন ৮ রান। তারপর দলটির দ্বিতীয় উইকেট পড়ে ৪০ রানে। ১৭ রান করে ফিরে যান শেফালি ভার্মা। তারপর দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন জেমিমাহ রদ্রিগেজ (২০*) ও কনিকা আহুজা (১*)।

২০১০ ও ২০১৮ এশিয়ান গেমসে রুপা জিতেছিল বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। এবার সেমিফাইনালে ওঠায় পদক জেতার সম্ভাবনা এখনও আছে তাদের। আজ দুপুর ১২টায় শুরু হওয়া পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় সেমিফাইনালের হেরে যাওয়া দলটির সঙ্গে আগামীকাল ব্রোঞ্জের লড়াইয়ে নামবেন নিগাররা।

অর্থসূচক/এএইচআর

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.