ইমরান খানকে না রাখায় ক্ষমা চাইতে বললেন ওয়াসিম

ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারদের একজন ইমরান খান। পাকিস্তানের ক্রিকেট ঐতিহ্যের সঙ্গে মিশে আছেন ১৯৯২ বিশ্বকাপ জিতিয়ে। অধিনায়ক হিসেবে পাকিস্তানকে শিরোপা এনে দিলেও স্বাধীনতা দিবসের ভিডিওতে জায়গা মেলেনি তার। ভিডিওতে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে না রাখায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে (পিসিবি) ক্ষমা চাইতে বলছেন ওয়াসিম আকরাম।

১৪ আগস্ট নিজেদের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছিল দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। যেখানে এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের ক্রিকেটে অবদান রাখা ক্রিকেটারদের ট্রিবিউট দেয়া হয়েছে। প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের মুহূর্ত, প্রথম এশিয়া কাপ জয়, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়, ২০১২ এশিয়া কাপ জয় ছাড়াও আরও বেশি কিছু ঘটনা সেখানে দেখানো হয়।

সাবেকদের সঙ্গে ভিডিওতে জায়গা পেয়েছেন বর্তমান সময়ের শাহীন শাহ আফ্রিদি, বাবর আজমরা। এ ছাড়া মেয়েরাও পিসিবির সেই ভিডিওতে জায়গা পেয়েছেন। ওয়াসিম, জাভেদ মিঁয়াদাদরা জায়গা পেলেও ভিডিওতে নেই ১৯৯২ বিশ্বকাপের অধিনায়ক ইমরান।

পাকিস্তানের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে না রাখায় চারিদিকে চলছে সমালোচনা। ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে পিসিবির এমন কাণ্ডে কড়া সমালোচনা ওয়াসিমও। যে কারণে ভিডিও সরিয়ে দিয়ে ইমরানের কাছে পিসিবিকে ক্ষমা চাইতে বলছেন সাবেক এই বাঁহাতি এই পেসার।

ওয়াসিম লিখেছেন, ‘দীর্ঘ ফ্লাইট শেষে শ্রীলঙ্কায় এলাম। আমি হতবাক হয়ে গেছি পিসিবির ছোট ভিডিও দেখে যেখানে কিংবদন্তি ইমরান খানকে রাখা হয়নি। রাজনৈতিক মত পার্থক্য থাকতেই পারে কিন্তু ইমরান পাকিস্তান ও বিশ্ব ক্রিকেটের আইকন। তিনি পাকিস্তানের ক্রিকেটকে শক্ত ভিত্তি দিয়েছেন। পিসিবির উচিত এই ভিডিও সরিয়ে ক্ষমা চাওয়া।’

পাকিস্তানের হয়ে ৮৮ টেস্টে ৩৬২ উইকেট নিয়েছেন ইমরান। ৬ সেঞ্চুরি ও ১৮ হাফ সেঞ্চুরিতে ব্যাট হাতে সাবেক এই অলরাউন্ডারের রান ৩ হাজার ৮০৭। ওয়ানডেতে ১৭৫ ম্যাচে ১৮২ উইকেট নেয়া ইমরান ১ সেঞ্চুরিও ১৯ হাফ সেঞ্চুরিতে করেছেন ৩ হাজার ৭০৯ রান।

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.