দুর্বৃত্তের হামলায় সাংবাদিক নাদিমের মৃত্যু

জামালপুরের বকশীগঞ্জে দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত সাংবাদিক গোলাম রব্বানী নাদিম মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তার স্ত্রী মনিরা বেগম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, বুধবার (১৪ জুন) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বকশীগঞ্জ সরকারি কলেজ এলাকার পাথাটিয়ার ডাচ-বাংলা ব্যাংকের বুথের সামনে দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত হন সাংবাদিক গোলাম রব্বানী নাদিম।

পরে স্থানীয় ও পরিবার সূত্র জানায়, রাতে পেশাগত দায়িত্বপালন শেষে বাড়ি ফেরার পথে নাদিমের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। একপর্যায়ে অচেতন হয়ে পড়লে তাকে ফেলে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় রাত ১২টায় সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় তাকে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

আহত নাদিমের স্ত্রী মনিরা বেগম জানান, আমি ফোনে খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে দেখি তাকে অনেক আঘাত করা হয়েছে। তার অবস্থা ভালো ছিল না। ঘটনার সাথে জড়িতদের বিচার চাই।

বকশীগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাহীন আল আমিন জানান, অসৎ উদ্দেশ্যে সাংবাদিক নাদিমকে গুরুতর আহত করা হয়েছে। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। অবিলম্বে এর সুষ্ঠু তদন্তসাপেক্ষে দুষ্কৃতকারীদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল রানা জানান, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। হাসপাতালে আমি তার সাথে কথা বলার চেষ্টা করেছি। অবস্থা খারাপ থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য জামালপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সিসি ক্যামেরা দেখে ঘটনার সঙ্গে জড়িত রেজাউল নামে একজনকে আমরা চিহ্নিত করতে পেরেছি। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে। বাকিদের খুব দ্রুত চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

গোলাম রব্বানি অনলাইন পোর্টাল বাংলানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের জামালপুর প্রতিনিধি ছিলেন।

অর্থসূচক/এমএস

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.