সিলেটের বড় পুঁজি

মিরপুরে ফিরেই রানে ফিরেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। চট্টগ্রাম পর্বের রান খরা কাটিয়ে ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে ৮৯ রানের অনবদ্য ইনিংস উপহার দিয়েছেন সিলেট স্ট্রাইকার্সের এই ওপেনার। সঙ্গে টম মোরেসের ৪০ রানের ইনিংস সিলেটকে সাহায্য করেছে স্কোরবোর্ডে ১৭৩ রান তুলতে।

টসে জিতে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি সিলেটের। স্কোরবোর্ডে ১৫ রান তুলতেই ৩ ব্যাটারকে হারিয়ে বসে চলতি আসরে ৫ জয় পাওয়া দলটি। রানের খাতা না খুলেই প্রথম বলে ফিরেন মুশফিকুর রহিম।

একই পথে হেঁটেছিলেন জাকির হাসানও। তিনিও প্রথম বলে আউট হয়েছিলেন মোহাম্মদ ওয়াসিমের শিকার হয়ে। এরপর তৌহিদ হৃদয়কেও ৪ রানে ফিরিয়েছিলেন এই পেসার। ১৫ রানে ৩ ব্যাটারকে হারালেও মোরেস ও শান্ত মিলে হাল ধরেন দলের। তাদের ব্যাটে দলীয় ৫০ পার করে সিলেট। এরপর সেখান থেকে দুজনের হাত ধরেই একশো’র পথে হাঁটতে থাকে দল। কিন্তু ৪০ রান করা মোরেসকে ১৪তম ওভারে বিদায় করেন সাকিব আল হাসান। ১০০’র আগে চতুর্থ উইকেট হারালেও থিসারা পেরেরাকে নিয়ে হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন শান্ত।

৪৮ বলে মাইলফলকে পৌঁছে অবশ্য থেমে যাননি শান্ত। থিসারার সঙ্গে জুটি বেঁধে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠেন শান্ত। শেষ ওভারে দলের রান গিয়ে দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ১৫৯। শান্ত সে সময় অপরাজিত ৮৪ রানে। সেঞ্চুরির সুযোগ থাকলেও শেষ ওভারে সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি শান্ত। ওভারের তৃতীয় বলে থিসারাকে কামরুল ইসলাম রাবিব আউট করলেও শেষ বলে শুধু ব্যাটিংয়ের সুযোগ পান এই ওপেনার। সেই বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৮৯ এ অপরাজিত থাকেন তিনি। সিলেটের ইনিংস শেষ হয় ১৭৩ রানে।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...