হবু কনেরা হাজারো কর্ম ব্যস্ততায় যেভাবে ত্বকের যত্ন নেবেন

বিয়ের সিজন বলতে সবার মাথায় শীতকালের নামটাই প্রথমে আসে । শীতকাল মানেই বিয়ের মরসুম। জীবনের অন্যতম একটি স্মরণীয় দিন হল বিয়ের দিনটি। ফলে এই বিশেষ দিনে কনের সাজগোজেও থাকা চাই আলাদা চমক। জমকালো বেনারসি, ভারী সোনার গয়না, ফুলের সাজে বিয়ের দিন অপরূপা হয়ে ওঠেন কনেরা। কিন্তু রূপটান তো সৌন্দর্যের আসল সংজ্ঞা নয়। বিয়ের কনের ত্বকে থাকা চাই নিজস্ব ঔজ্জ্বল্য। তার জন্য প্রয়োজন বিয়ের কয়েক সপ্তাহ আগে থেকে ত্বকের পরিচর্যা করা। অনেকেই বিয়ের আগে নিজের যত্ন নিতে পার্লারে যান। বিয়ে মানেই হাজারটা কাজ। অনেককেই নিজের বিয়ের বেশির ভাগ কাজ নিজের হাতেই করতে হয়। এ দিকে বিয়ের মরসুমে পার্লারগুলিতে গিজগিজ করছে ভিড়। ফলে গেলেই আপনি পরিষেবা পেয়ে যাবেন, এমন নয়। অপেক্ষা করতে হবে। বিয়ের আগে মূল্যবান সময় বাঁচাতে বাড়িতে কিন্তু ত্বকের যত্ন নিতে পারেন। কয়েকটি ফেস প্যাকের উপর ভরসা রাখলেই বিয়ের দিন হবু বর তো বটেই, বাকি নিমন্ত্রিতদের নজরও আপনার দিকেই থাকবে।

টক দই এবং মধু

ত্বকের যত্নে এই দু’টি উপকরণই সমান উপকারী। শীতে ত্বকে মধু মাখার চেয়ে ভাল আর কিছু হয় না। একটি পাত্রে দু’চামচ টক দই আর এক চামচ মধু নিন। তার পর দু’টিকে এক সঙ্গে ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে ত্বকে লাগান। ঘণ্টাখানেক রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দু’দিন এটি ব্যবহার করতে পারেন। পরিবর্তন বিয়ের দিন চোখে পড়বেই।

পেঁপে এবং অ্যালো ভেরা

শীতে ত্বকের যত্ন নিতে পেঁপে। এই ফলে থাকা বিভিন্ন ধরনের উপাদান ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়। সেই সঙ্গে যদি জুটি বাঁধে অ্যালো ভেরা তা হলে সুফল পেতে বাধ্য। একটি পাত্রে এক চামচ অ্যালো ভেরা এবং কয়েক টুকরো পাকা পেঁপে নিন। এ বার দু’টিকে একসঙ্গে ভাল করে মিশিয়ে নিন। একটি থকথকে মিশ্রণ তৈরি হলে ত্বকে লাগিয়ে কিছু ক্ষণ রেখে দিন। শুকিয়ে এলে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে অন্তত দু-তিন দিন এটি ব্যবহার করতে পারেন। উপকার পাবেন।

ওট মিল, ময়দা এবং মধু

এই তিনটিই ত্বকের যত্নে দারুণ উপকারী। বিয়ের আগে ত্বকের যত্ন নিতে ভরসা রাখতে পারেন এই উপাদানগুলির উপর। একটি পাত্রে ওট মিল, ময়দা এবং মধু একসঙ্গে নিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। তার পর ওই মিশ্রণটি ভাল করে ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে এলে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

অর্থসূচক / এইচএআই

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...