সাংবাদিকদের তথ্য প্রাপ্তিতে কোনো বাধা নেই: বিএসইসি চেয়ারম্যান

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, বর্তমান কমিশন স্বচ্ছতায় বিশ্বাসী। তারা পুঁজিবাজারে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতা প্রতিষ্ঠায় কাজ করছেন। বিএসইসিও এর বাইরে নয়। আর সাংবাদিকরা তাদের দায়িত্বশীল রিপোর্টিংয়ের মাধ্যমে এই স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রেখে থাকে। তাই বিএসইসি থেকে সাংবাদিকদের তথ্য প্রাপ্তিতে কোনো বাধা নেই।

আজ সোমবার (৫ ডিসেম্বর) ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) আয়োজিত এক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

সম্প্রতি বিএসইসিতে অনুষ্ঠিত কর্মকর্তাদের একটি বৈঠকে কমিশনের চেয়ারম্যান ও উর্ধতন কর্মকর্তারা সাংবাদিকদের কাছে তথ্য প্রকাশে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বলে আজ একটি সংবাদপত্রে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। এই সংবাদে দাবি করা হয়, বৈঠকে কর্মকর্তাদের সতর্ক করে বলা হয়েছে, ‘সাংবাদিকদের কাছে কোনো কর্মকর্তা তথ্য সরবরাহ করলে ওই কর্মকর্তা চাকরিচ্যুত হতে পারেন। এমনকি জেল-জরিমানাও হতে পারে।’। বিষয়টি সত্য কি-না সে সম্পর্কে বিএসইসি চেয়ারম্যানের মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি উপরের কথাগুলো বলেন।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, সাংবাদিকদের কাছে তথ্য প্রকাশের ব্যাপারে তারা ওই সভায় কোনো বক্তব্য রাখেননি। তারা মূলত ১৯৬৯ সালের সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন অধ্যাদেশের গোপনীয় তথ্যের সুরক্ষা বিষয়ে ১৯ ধারায় বলা হয়েছে। ওই ধারাটি সবাইকে স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ধারায় বর্তমান ও সাবেক এমএলএসএস থেকে চেয়ারম্যান পর্যন্ত কর্মকর্তাদের তথ্যের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

তিনি বলেন, কোনো কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তারা বিভিন্ন পার্টির কাছে তথ্য শেয়ার করেন। বিভিন্ন নথির ছবি তুলে পাঠিয়ে দেন। এটি আইনের লংঘন। আইনের সুষ্ঠু বাস্তবায়ন ও শৃঙ্খলা নিশ্চিত করার স্বার্থে কর্মকর্তাদেরকে এভাবে তথ্য শেয়ার না করার জন্য সতর্ক করা হয়েছে। আইনে এই ধরনের অপরাধের শাস্তি কী সে বিষয়গুলো সম্রণ করিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর সাথে সাংবাদিকদের তথ্য দেওয়ার কোনো সম্পর্ক নেই।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...