‘বিকল্প দ্বিতীয় কোন পৃথিবী নেই; প্রকৃতিকে তার নিজস্ব নিয়মে চলতে দিতে হবে’

ইঞ্জিনিয়ার আবদুল খালেক মিলনায়তনে ‘প্রকৃতি কর্ণফুলী’ সংখ্যার প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ‘প্রকৃতি সুহৃদ সম্মাননা-২০২২’ শীর্ষক এক বিশেষ পর্ব আয়োজন করা হয়।

গত শনিবার (১২ নভেম্বর) বন্দরনগরী চট্টগ্রামের প্রেসক্লাবে আয়োজনটি অনুষ্ঠিত হয়।

‘প্রকৃতি’ সম্পাদক মুশফিক হোসাইন এর সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন (বিএইচবিএফসি) পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম উদ্দিন, এফসিএ, এফসিএমএ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে, ড. সেলিম মানুষের জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় প্রকৃতির উপর নিয়মিত নিষ্ঠুর অত্যাচার এবং এর ফলে নানাবিধ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের চিত্র তুলে ধরেন। এসময় তিনি উন্নত বিশ্ব কর্তৃক ব্যাপক হারে কার্বণ নিঃসরনের ক্ষতিকর প্রভাব এবং এর ফলে কোটি-কোটি মানুষের জন্য বিশুদ্ধ পানির দুঃস্প্রাপ্যতা, আমাদের গড় আয়ুস্কাল কমে যাওয়াসহ নানান বিপদের বর্ণনা দেন। ড. সেলিম তাঁর বক্তব্যে প্রকৃতির প্রতি নির্মমতা বন্ধ করে Living Sustainability in Harmony with Nature স্লোগানকে সামনে রেখে প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষার আহবান জানান। আমাদের জন্য বিকল্প দ্বিতীয় কোন পৃথিবী নেই; প্রকৃতিকে তার নিজস্ব নিয়মে চলতে দিতে হবে উল্লেখ করে তিনি সকলকে প্রকৃতির ক্ষতি সাধন থেকে বিরত থাকার আহবান জানান। একই সাথে তিনি প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় যাঁরা কাজ করছেন, তাঁদের সহযোগিতা করার জন্যও আহবান জানান।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের যুগ্নসচিব মোঃ জাফর আলম, বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির কমান্ড্যান্ট ড. সাজিদ হোসেন এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সচিব প্রফেসর আবদুল আলিম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে প্রফেসর মোহাম্মদ মুজিবুল চৌধুরীকে  প্রকৃতি সুহৃদ সম্মামনা-২০২২ প্রদান করা হয়।

প্রথসূচক/ এইচএআই

 

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...