সরকার ভয় পেয়ে ফের গ্রেফতার শুরু করেছে: রিজভী

সরকার ভয় পেয়ে দেশজুড়ে ফের দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার শুরু করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রবিবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, ‘কোনোকিছুই আমাদের ঠেকাতে পারবে না। আমাদের সব অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা মাঠে নেমেছেন তাদের অধিকার আদায়ের জন্য। ইতোমধ্যে বিভাগীয় গণসমাবেশে তার প্রমাণ দেশবাসী দেখছেন।‘

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আপনার মন্ত্রী-নেতারা বলেন, বিএনপি নেতারা নাকি ১৩ বছরে ১৩ মিনিটও রাজপথ দখলে রাখতে পারেনি। তাহলে আপনার কাছে আমাদের প্রশ্ন, সেই বিএনপি যখন সমাবেশ ডাকে, তখন বাস-ট্রেন-লঞ্চসহ সব গণপরিবহন বন্ধ করা হয় কেন? আপনি এর কী উত্তর দেবেন প্রধানমন্ত্রী? আপনারা অপকর্ম ঢাকতে জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে যে কুৎসা রটান সেটি জনগণ জানে। আপনি জনগণকে বোকা বানাতে চাইলেও জনগণ উপলব্ধি করে।’

বিএনপির গণসমাবেশগুলোতে মানুষের ঢল অভূতপূর্ব উল্লেখ করে তিনি বলেন, সনাতন ধর্মাবলম্বীরা ঢাক-ঢোল বাজিয়ে সমাবেশে যোগ দিচ্ছেন। ফরিদপুরের জনসভায় দুই দিন আগে থেকেই কমরপুর আব্দুল আজিজ ইনস্টিটিউশন মাঠে নেতাকর্মীরা আসতে থাকেন। আশেপাশের বিএনপির স্থানীয় নেতাকর্মীরা রান্না করে তাদের খাইয়েছেন। অনেকেই আশেপাশের স্কুলে আশ্রয় নিয়েছেন। মূল শহর থেকে ৬ কিলোমিটার দূরে সমাবেশস্থল দেখে মনে হয়েছে, গোটা ফরিদপুর শহরসহ আশপাশের এলাকায় মানব-বন্যা সৃষ্টি হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী এসব দেখেই মূলত হতাশ হয়ে ক্রোধে-প্রতিহিংসায় বেসামাল হয়ে পড়েছেন। আর এজন্যই জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা নানা কথা বলছেন। প্রধানমন্ত্রী তাদের বিরুদ্ধে যতই কথা বলবেন ততই তিনি দেশের মানুষের কাছে ঘৃণিত হবেন।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, বিএনপির গণসমাবেশগুলোতে জনগণের বিপুল সমাগম দেখে আওয়ামী প্রশাসন দমনের নীল নকশা অনুযায়ী কাজ করছে। ইতোমধ্যে ঢাকা মহানগরীর উত্তর ও দক্ষিণের অসংখ্য বিএনপি নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেন।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...