ইউক্রেনকে এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দিচ্ছে জার্মানি

গত জুন মাসে ইউক্রেনকে জার্মান এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দেওয়ার কথা বলেছিলেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলফ শলৎস। এই বছরের শেষের মধ্যে তা দেওয়া হবে বলে ঠিক হয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি রাশিয়া যেভাবে ইউক্রেনের শহরগুলিতে নতুন করে মিসাইল আক্রমণ শুরু করেছে, তাতে এখনই এই অস্ত্র ইউক্রেনকে দেওয়া হবে বলে জার্মানি জানিয়েছে।

জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টিন ল্যামব্রেখট বলেছেন, ‘রাশিয়া ইউক্রেনের বেসামরিক মানুষের উপর যেভাবে আক্রমণ শুরু করেছে, তাতে দ্রুত এই ডিফেন্স সিস্টেম দেওয়া প্রয়োজন। কয়েকদিনের মধ্যেই ইউক্রেন তা পাবে।’ বস্তুত, প্রাথমিকভাবে চারটি এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দেওয়ার কথা জার্মানির। তারমধ্যে প্রথমটি এই সপ্তাহের মধ্যেই পেতে পারে ইউক্রেন।

জার্মানির কাছে অনেকদিন আগেই এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম চেয়েছিল ইউক্রেন। রাশিয়ার হামলা থেকে বাঁচতেই তা চাওয়া হয়েছিল। এতদিন পর জার্মানি তা ইউক্রেনের হাতে তুলে দিচ্ছে। জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেয়ারবক বলেছেন, এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম ইউক্রেনের সাধারণ মানুষকে রক্ষা করবে। এই মুহূর্তে ইউক্রেনের এটি সবচেয়ে প্রয়োজন।

জার্মানি আইআরআইএস-টি-এসএলএম এয়ারডিফএন্স সিস্টেম পাঠাচ্ছে ইউক্রেনকে। এর সাহায্যে মাটির উপর ২০ থেকে ৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত দূরত্বে ধেয়ে আসা মিসাইল আটকে দেওয়া যায়। মিসাইলের গতিপথ পরিবর্তন করে দিতে পারে এই সিস্টেম।

বস্তুত, গত কয়েকদিন ধরে রাশিয়া ইউক্রেনে মিসাইল আক্রমণ কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। ক্রাইমিয়া ব্রিজে বিস্ফোরণের পর রাশিয়া মিসাইল আক্রমণ বাড়িয়েছে। কিয়েভসহ ইউক্রেনের প্রায় প্রতিটি বড় শহরেই তারা লাগাতার মিসাইল আক্রমণ করছে। এই পরিস্থিতিতে জার্মানির এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম ইউক্রেনকে অনেকটাই সাহায্য করবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। সূত্র: ডিডাব্লিউ, রয়টার্স, এপি, এএফপি, ডিপিএ

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.