‘বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ড থেকেই বাদ পড়তে পারে পাকিস্তান’

সুযোগ পেয়েও আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি ইফতিখার আহমেদ ও খুশদিল শাহ। এশিয়া কাপে ভালো করতে না পারলেও টিকে গেছেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে। এমন অবস্থায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সমালোচনা করেছেন শোয়েব আখতার। পিসিবি কি ভেবে দল নির্বাচন করেছে সেটা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন পাকিস্তানের সাবেক এই পেসার।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে শোয়েব বলেন, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কী দল বাছাই করল! সমস্যা মিডল অর্ডারে, কিন্তু ওনারা বরাবরের মতোই বলেছেন, এমন দল নির্বাচন করব যে সবারই পছন্দ হবে। অর্থাৎ আমরা এমন সিদ্ধান্ত নেব যে মিডল অর্ডার পাল্টাবে না। ফখর জামানকে নিয়ে অনেকবার বলেছি, তাকে ওই (পাওয়ার প্লে) ৬ ওভার দিন। অস্ট্রেলিয়ায় বল খেলতে ওর সুবিধা হবে, কিন্তু বাবরকে ওপরেই রাখতে হলো।’

এশিয়া কাপে ভারত, হংকং এবং আফগানিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে উঠলেও শিরোপা জেতা হয়নি পাকিস্তানের। এদিকে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফর্ম করে সেমিফাইনালে উঠলেও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়েছিল বাবর আজমের দলকে। সেবার সেমিফাইনাল খেললেও অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড থেকেই পাকিস্তান বাদ পড়তে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন শোয়েব।

তিনি বলেন, ‘প্রধান নির্বাচক যখন সাধারণ কেউ হবেন, তার দল নির্বাচনও গড়পড়তাই হবে। সাকলায়েন মুশতাক সর্বশেষ ক্রিকেট খেলেছে ২০০২ সালে। এটা এভাবে বলতে চাই না, কারণ সে আমার বন্ধু, তবে এটা ঠিক যে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট নিয়ে তার কোনো ধারণা নেই। আর মোহাম্মদ ইউসুফ থাকতে দলের ব্যাটিং কীভাবে বাজে হয়? ইউসুফ দলের ড্রেসিংরুমে সম্পদ। আমি জানি না, তার কথা বলার অধিকার কতটুকু। ইফতিখার আহমেদ হলেন মিসবাহর দ্বিতীয় অংশ। মাশা আল্লাহ, আমাদের সঙ্গে রিজওয়ান আছে এবং তার সঙ্গে আছে ইফতিখার। এই দল নিয়ে আমরা প্রথম রাউন্ড থেকেই বাদ পড়তে পারি। আমাদের ব্যাটিংয়ের গভীরতা নেই, এটা নিয়ে খুব দুশ্চিন্তায় আছি। আমাদের অধিনায়কও এ সংস্করণের জন্য পুরোপুরি মানানসই নয়। সে তার ক্ল্যাসিক কাভার ড্রাইভ নিয়েই ব্যস্ত। সে নিজেকে ক্ল্যাসিক দেখাতে চায়।’

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...