কাবুলে মসজিদে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১০

মাগরিবের নামাজের সময় আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে একটি মসজিদে বোমা বিস্ফোরণে অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছেন। বুধবার (১৭ আগস্ট) ওই বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন আরও অনেকে। দেশটির পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ইতালির একটি বেসরকারি সংগঠন ইমার্জেন্সি, যারা রাজধানী কাবুলে একটি হাসপাতাল পরিচালনা করে তারা জানায়, বিস্ফোরণে আহত ২৭ জনকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তিন জন নিহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে পাঁচটি শিশুও রয়েছে।

দেশটির এক নিরাপত্তাবিষয়ক কর্মকর্তা জানিয়েছেন অন্তত ২০ জন নিহত ও ৪০ জন আহত হয়েছেন বিস্ফোরণে। এপি তাদের খবরে বলছে, অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছেন এ হামলায়।

তালেবান সরকারের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ নিশ্চিত করেছেন হতাহতের ঘটনা। তবে কতজন হতাহত হয়েছেন তা তিনি নিশ্চিত করেননি। টুইটারে তিনি লিখেছেন, সাধারণ মানুষ ও মুসল্লিদের হত্যাকারীদের শিগগির শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।

পুলিশ বলছে, বহু হতাহত হয়েছে, তবে কতজন তা নিশ্চিত করেনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, কাবুলের উত্তরাঞ্চলে খায়ের খানার সিদ্দিকিয়া নামের একটি মসজিদে এ হামলা হয়। ওই এলাকার এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, ওই মসজিদের ইমাম মোল্লা আমির মোহাম্মদ কাবুলিও হামলায় নিহত হয়েছেন।

হামলার ঘটনাটি তদন্ত করছে দেশটির গোয়েন্দা টিম।

তালেবানের শাসনের একবছরে সহিংসতার ঘটনা কমেছে দেশটিতে। তবে সম্প্রতি জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের সহযোগী খোরাসান শাখা সেখানে বেশ কয়েকটি হামলার দায় স্বীকার করেছে।

গত সপ্তাহেও তালেবানের একজন শীর্ষ নেতা শেইখ রহিমুল্লাহ হাক্কানি বোমা হামলায় নিহত হন। এই হামলার দায় স্বীকার করে আইএস। এর আগে গত জুনে একটি শিখ মন্দিরে হামলার দায় স্বীকার করে আইএসের খোরাসান শাখা (আইএসকেপি)।

২০২১ সালের ১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। সে বছর ৩১ আগস্ট আফগানিস্তানের মাটি ত্যাগ করে যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো বাহিনীর সদস্যরা। দেশ শাসনের এক বছরেও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়নি তালেবান।

সূত্র: আল-জাজিরা, এপি

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...