ভারত-অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ

ক্রমশ নিজেদের উন্নতি করলেও আইসিসির বড় কোনো ইভেন্ট ছাড়া ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মতো বড় দলের সঙ্গে খুব বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ হয় না বাংলাদেশের। আইসিসির টুর্নামেন্টের বাইরের ভারতের সঙ্গে খেললেও অস্ট্রেলিয়ার মেয়েদের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলা হয়নি নিগার সুলতানা জ্যোতির দলের।

অবশেষে সেই আক্ষেপ ঘুচতে যাচ্ছে বাংলাদেশের মেয়েদের। আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রামের (এফটিপি) ২০২২-২৫ চক্রে আটটি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। যেখানে ঘরের মাঠে পাকিস্তান ও আয়ারল্যান্ডের পাশাপাশি ভারত-অস্ট্রেলিয়াকে আতিথেয়তা দেবে টাইগ্রেসরা। বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা, সাউথ আফ্রিকা এবং নিউজিল্যান্ড।

এফটিপির পরবর্তী চক্রে মোট ৩০১টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে ১০টি দল। যেখানে সাতটি টেস্ট , ১৩৫টি ওয়ানডে এবং ১৫৯টি টি-টোয়েন্টি হবে। বাংলাদেশ অবশ্য খেলার সুযোগ পাবেন ৫০টি ম্যাচ। যার ২৪টি ওয়ানডে আর বাকি ২৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশের মেয়েরা।

চলতি বছরের শেষ দিকে নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে আইসিসির পরবর্তী এফটিপিতে মিশন শুরু করবে জ্যোতিরা। আগামী বছরের জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে বাংলাদেশ। ২০২৩ সালের জুন-জুলাইয়ে বাংলাদেশে আসবে ভারত। যেখানে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে তারা।

এদিকে ২০২৪ সালের মার্চ-এপ্রিলে ওয়ানড ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসবে অস্ট্রেলিয়ার মেয়েরা। যেখানে তিন ওয়ানডের সঙ্গে রয়েছে তিনটি টি-টোয়েন্টি। আয়ারল্যান্ড এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ দিয়ে শেষ হবে বাংলাদেশের মেয়েদের ২০২২-২৫ চক্রের খেলা।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...