অবৈধ বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনে জড়িত থাকায় ৩ জন আটক

বৈদেশিক মুদ্রার অবৈধ লেনদেনে জড়িত থাকায় রাজধানীর দিলকুশার উত্তরা ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেন শাখা (এডি) থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (০২ আগস্ট) খোলাবাজারে বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিদর্শনের সময় সরেজমিনে এই তথ্য জানা গেছে। এসময় পরিদর্শন দলের নেতৃত্বে ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগের জয়েন ডিরেক্টর মোহাম্মদ আলী। তিনি বলেন, ডলার বেচাকেনায় অনিয়ম রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এরই ধারাবাহিকতায় মানি এক্সচেঞ্জ ও মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠানগুলোতে আমরা পরিদর্শন শুরু করেছি।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে দিলকুশার উত্তরা ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেন শাখা (এডি) থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আটক তিনজনই দালাল। তারা গ্রাহকদের লোভ দেখিয়ে ব্যাংক থেকে মানি চেঞ্জারে নিয়ে যাচ্ছিলেন।

তিনি বলেন, আটক তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক গত কয়েকদিন থেকেই বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অনুরাধ জানিয়ে আসছে এই খাতে অবৈধ প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর নজরদারি বাড়াতে এবং তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে।

এর আগে, গত রোববার কয়েকটি মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ডলার কেনাবেচায় অনিয়ম পাওয়ায় তিনটির লাইসেন্স স্থগিতসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। সেই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার আরও দুই মানি চেঞ্জারের লাইসেন্স স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

পাশাপাশি লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা করায় নয়টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে অনুরোধ করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘ডলারের বাজারে অস্থিরতা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিদর্শক দল এ পর্যন্ত ৮০টি মানি চেঞ্জার পরিদর্শন করেছে। এর মধ্যে ৪২টি প্রতিষ্ঠানকে ডলার কেনাবেচায় বিভিন্ন অনিয়মের কারণে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। আর পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স স্থগিত করা হয়েছে। এমন অভিযান অব্যাহত রাখা হবে বলেও জানান তিনি।

অর্থসূচক/এমএস/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...