ওয়াশিং মেশিনে মিলল ৭ বছরের শিশুর লাশ

বাবা বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন। মা সারা রাত কাজে ছিলেন। সকালে বাড়ি ফিরে ছেলেকে দেখতে পাননি মা। শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। অনেক চেষ্টা করেও খুঁজে না পেয়ে পুলিশকে খবর দেন ওই দম্পতি। অবশেষে বাড়ির ওয়াশিং মেশিন থেকে সাত বছরের শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনাটি আমেরিকার টেক্সাসের। ওই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

গত কয়েক বছর ধরে সাত বছরের ট্রয় খোইলারকে দেখভাল করছিলেন টেক্সাসের নিঃসন্তান ওই দম্পতি। ২০১৯ সালে ট্রয়কে দত্তক নেন তাঁরা। বৃহস্পতিবার সকালে আচমকা বাড়ি থেকে গায়েব হয়ে যায় ট্রয়। পুলিশ সূত্রে খবর, ছেলেটির মা একটি হাসপাতালে নার্সের কাজ করেন। স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৬টা নাগাদ বাড়ি ফিরে ছেলের খোঁজ করেন তিনি। বাবা সে সময় ঘুমিয়ে ছিলেন। ২-৩ ঘণ্টা ধরে খোঁজার পর তাঁরা পুলিশে খবর দেন। পরে ওয়াশিং মেশিন থেকে শিশুটির দেহ উদ্ধার হয়। আমেরিকার টেক্সাসের এই ঘটনায় বিস্মিত অনেকে। কে বা কারা এই ঘটনার পিছনে জড়িত তা এখনও চিহ্নিত করতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে মধ্যরাতে ঘটনাটি ঘটেছে। খুনের ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। খুনের উদ্দেশ্য এখনও জানা যায়নি। এমনকি, শিশুটিকে খুন করে ওয়াশিং মেশিনে ঢোকানো হয়েছে নাকি, ওয়াশিং মেশিনে ঢুকিয়ে খুন করা হয়েছে তা এখনও পরিষ্কার নয়। পোশাক পরিহিত অবস্থায় মৃতদেহটি পাওয়া গিয়েছে। ঘটনাটি সম্পর্কে প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...