আমি হেরে যেতে আসিনি: নিপা রোজ

চিত্রনায়িকা ও প্রযোজক নিপা রোজ। তার প্রথম ছবি ‘বড্ড ভালোবাসি’ মুক্তি পেয়েছে গত রোজার ঈদে। ছবিটি প্রযোজনা করছেন নায়িকা নিজেই। এ ছবিটি ঘিরে আলোচনা-সমালোচনা কম হয়নি। এখনো রয়েছে আলোচনায়।

চলচ্চিত্র অঙ্গনের প্রায় প্রতিটা মানুষই তার এই প্রচেষ্টাকে জানিয়েছেন সাধুবাদ। দিয়েছেন উৎসাহ। তবে সব আলোচানা-সমালোচনা পাশ কাটিয়ে নীরবে নিজের লক্ষ্যের দিকে ছুটে চলেছেন এই চিত্র নায়িকা। নিজের অভিনয় দক্ষতা বাড়ানোর জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছেন প্রতিনিয়ত।

অর্থসূচককে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিপা বলেন, আমার বেড়ে ওঠা চট্টগ্রামে। কিন্তু ছোট থেকেই ইচ্ছে ছিল মিডিয়ায় কাজ করার, ইচ্ছে ছিল নায়িকা হওয়ার। সেই লক্ষ্য নিয়েই আমি ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছি। ইনশাআল্লাহ আমি চলচ্চিত্রের জন্য, চলচ্চিত্রের মানুষের জন্য ভালো কিছু করবো এই আশা রাখি। নিশ্চই মানুষ আমাকে ভালোবাসবেন।

‘বড্ড ভালোবাসি’ সিনেমাটি নিয়ে জানতে চাইলে এই নায়িকা বলেন, প্রচুর দর্শক সিনেমাটি দেখতে চায়। আমাকে প্রতিদিনই সিনেমা প্রেমিরা ফোন করে, এসএমএসের মাধ্যমে জানতে চায় কবে তারা সিনেমাটি দেখতে পাবে।

এই নায়িকা কিছুটা আক্ষেপ নিয়ে বলেন, আমি ‘বড্ড ভালোবাসি’ সিনেমাটি ১ কোটি টাকা খরচ করে বানিয়েছি। সব আমার নিজের টাকা। নিজের জমি বিক্রি করে… অনেক কষ্ট করে, এই সিনেমাটি বানিয়েছি। এটি আমার সন্তানের মতো। কিন্তু সিনেমা মুক্তির সময় আমি কোনো হল পাইনি, মাত্র ৩ টা হল পেয়েছি। হয়েছি পলিটিক্সের শিকার। আমি চাইবো আমার সিনেমাটা যেন অন্তত ৫০ টি হলে চলুক। মানুষ দেখুক, তারপর বিচার করুক আমার সিনেমা ভালো না খারাপ। আমি অনেক সপ্ন নিয়ে মিডিয়াতে এসেছি, সেটা আমি শেষ হতে দিতে চাই না।

তিনি আরও বলেন, আমার ছবিটা ভালো না খারাপ, এটা বিচারের আগে অবশ্যই দেখতে হবে। না দেখে একটা কথা বলে দিলেই তো আর হবে না।

তিনি আরও বলেন, সিনেমাটি বানাতে গিয়ে আমার গার্মেন্টস ব্যবসা, পার্লারের ব্যবসা, সব বন্ধ হয়ে গেছে। আমার ৩ টা পার্লার ছিল, এখন বন্ধ করে বাসায় নিয়ে এসেছি। হাতে টাকা নেই, তাই ব্যবসায় মনযোগী হতে পারছি না। হল মালিকরা সিনেমাটি চালালে হয়তো আমি কিছুটা ঘুরে ফিরতে পারবো, এবং মানুষের আরও কাছে পৌঁছাতে পারবো। আমি হল মালিকদের অনুরোধ করবো তারা যেন আমার সিনেমাটা চালায়।

নিজের অভিনয় নিয়ে নিপা বলেন, ছবিটা যারা দেখেছেন সবাই বলছেন আমি ভালো অভিনয় করেছি। একই ছবিতে একসঙ্গে দুটি চরিত্রে অভিনয় করা মোটেও সহজ ব্যাপার না। আমি চরিত্র দুটি ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি। অনেক সুপারস্টার নায়িকাকে হঠাৎ করে কোনো গল্প দিলে তারাও কিন্তু একটু চিন্তাভাবনা করবেন। অনেক প্রতিবন্ধকতা থাকা সত্ত্বেও ভালো অভিনয়ের চেষ্টা করেছি। ভবিষ্যতে আরও ভালো করবো।

পরবর্তী সিনেমা নিয়ে তিনি বলেন, আমার হাতে বেশ কিছু পরিকল্পনা আছে। আমি ‘টাইটানিক’ নামে একটি সিনেমা বানাতে চাই, গল্প লেখা শেষ পর্যায়ে। খুব শীঘ্রই শুটিং শুরু করবো। আমার ইচ্ছে এখানে আমার নায়ক হিসেবে থাকবেন আমাদের সুপারস্টার শাকিব খান। ইচ্ছে তো সবারই থাকে বড়-বড় সুপারস্টার, স্টারদের সাথে কাজ করার। আমিও সেই জায়গা থেকে শাকিব ভাইয়াকে চাই, চাইবো। তাছাড়া ‘পদ্মা সেতু’ নামে আরেকটি সিনেমা বানাতে চাই।

এই উদীয়মান নায়িকা বলেন, এখন থেকে আমি গল্প বেছে-বেছে কাজ করবো। বেশ সাড়া পাচ্ছি। মানুষ আমাকে ভালোবাসতে শুরু করেছেন। প্রতিনিয়তই দর্শকরা আমাকে এসএমএস করে। আমাকে সাপোর্ট দেয়। আমার আপডেট জানতে চায় তারা। ইতোমধ্যে আমার হাতে অনেক গল্প এসেছে। কিন্তু সেগুলো তেমন পছন্দ হয়নি। একটু সময় নিয়ে হলেও ভালো কিছুর চেষ্টা করবো। মানুষ যেন আমার সিনেমা থেকে কিছু শিখতে পারেন।

এছাড়া প্রযোজক সমিতির নির্বাচন নিয়ে নিপা বলেন, আমি নির্বাচন করবো, সামনে নির্বাচন। সবাই আমাকে ভালোবাসেন। ভালো কিছু করার লক্ষ্য নিয়েই ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছি। আমার মতো যারা যুদ্ধ করছেন তাদের পাশে দাঁড়াবো। যারা আমাকে অপছন্দ করেন, তাদের জন্য আরও বেশি কাজ করবো। মোটকথা আমি আমার ইন্ডাস্ট্রি, আমার সিনেমা প্রেমি দর্শকদের জন্য কাজ করতে চাই।

সবশেষে নিপা বলেন, সিনেমার প্রচার-প্রচারণা নিয়ে কাজ করতে গিয়ে নিজের প্রতি সেভাবে যত্ন নিতে পারিনি। প্রযোজক সমিতির নির্বাচনের পর একটু বিশ্রাম পাবো। ঠিকমতো বিশ্রাম ও খাবার খেলে আশা করি দর্শকদের সামনে একজন পরিপূর্ণ নিপা হয়ে ফিরে আসতে পারবো। সবশেষে একটা কথাই বলবো, আমি সবার ভালোবাসা ও দোয়া চাই, আমি যেন এই চলচ্চিত্রের জন্য ভালো কিছু করতে পারি।

অর্থসূচক/মুসান্না সাকিব

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...