জ্বালানি সংকটে ইউরোপ: যুক্তরাজ্যে রেকর্ড মূল্যস্ফীতি

আবারও যুক্তরাজ্যে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। ৯ দশমিক ৪ শতাংশ মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধিতে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইউরোপেও দেখা দিয়েছে জ্বালানি সংকট। এই সংকটে সদস্য দেশগুলোকে জ্বালানি ব্যবহারে মিতব্যয়ী হওয়ার নির্দেশ ইউরোপীয় ইউনিয়নের।

বুধবার (২০ জুলাই) এই তথ্য জানায় বিশ্বের শীর্ষ রিয়েলটাইম ও বিজনেস সংবাদ পরিবেশনকারী সংবাদ মাধ্যম সিএনবিসি।

খাদ্য ও জ্বালানির মূল্য লাগাতার বাড়তে থাকায় যুক্তরাজ্যের মূল্যস্ফীতি আরও একবার রেকর্ড গড়েছে। গত ৪০ বছরের মূল্যস্ফীতির তালিকার শীর্ষে রয়েছে দেশটি। মূল্যস্ফীতি বেড়েছে ৯.৪ শতাংশ। মূল্যস্ফীতি পরিমাপক কনজ্যুমার প্রাইস ইনডেক্স (সিপিআই) আজ (২০ জুলাই) এই তথ্য প্রকাশ করে।

এর আগে, অর্থনীতিবিদদের নিয়ে রয়টার্সের করা জরিপে পূর্বাভাস করা হয়, মূল্যস্ফীতি ৯.১ শতাংশ ছাড়িয়ে যেতে পারে। চলতি বছরের মে মাসে রয়টার্সের করা জরিপের বাস্তব প্রতিফলন দেখল যুক্তরাজ্য।

এদিকে ইউক্রেন ইস্যুতে রাশিয়ার সঙ্গে তিক্ত সম্পর্কের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে ইউরোপ। রাশিয়ার বৃহত্তম জ্বালানি প্রতিষ্ঠান গ্যাসপ্রম চুক্তি অনুসারে ইইউকে গ্যাস সরবরাহ করতে পারছে না। এ অবস্থায় জ্বালানি সংকট মোকাবিলায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) নতুন একটি কৌশল গ্রহণ করেছে।

এ কৌশলকে ‘সবচেয়ে বিতর্কিত’ ইস্যু হিসেবে উল্লেখ করেছেন ইউরোপের এক সরকারি কর্মকর্তা। ইইউ-এর নেওয়া নতুন কৌশল নিয়ে সদস্যদেশগুলোর মধ্যে মতভেদ তৈরি হয়েছে উল্লেখ করে ঐ ব্যক্তি ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে জানান, ইউরোপীয় ইউনিয়নে যে সব দেশ আছে সবার জ্বালানি চাহিদা এক রকম নয়। দৃষ্টান্তস্বরূপ জার্মানির যে পরিমাণ জ্বালানির চাহিদা রয়েছে স্পেনের সে পরিমাণ নেয়। এক্ষেত্রে জার্মানি চাইলেই রাশিয়ার গ্যাস আমদানি বন্ধ করতে পারে না।

এ বিষয়ে ইউরোপীয় কমিশনের কাছে জানতে চাওয়া হলে জনসম্মুখে প্রসঙ্গটি তিনি এড়িয়ে যান।

অন্যদিকে, মূল্যস্ফীতি ঠেকাতে যুক্তরাজ্যের কেন্দ্রীয় ব্যাংক (ব্যাংক অব ইংল্যান্ড) ২৫ বেসিস পয়েন্ট বৃদ্ধি করেছে। এটা যথেষ্ট নয় বলে ব্যাংকের গভর্নর এন্ড্রু বেইলি মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) ম্যানসন হাউজ ফিন্যান্সিয়াল অ্যান্ড প্রফেশনাল সার্ভিস ডিনারে আর্থিক নীতি কমিটিকে ব্যাংক হার বাড়িয়ে ৫০ বেসিস পয়েন্ট নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। তবে এটা আগামী মাসে।

অর্থসূচক/এইচডি/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...