শফিকের সেঞ্চুরিতে জয়ের পথে পাকিস্তান

প্রথম ইনিংসে বাবর আজমের সেঞ্চুরি ছাড়া বলার মতো কোনো স্কোর করতে পারেনি পাকিস্তানের ব্যাটাররা। অধিনায়ক ছাড়া লঙ্কান স্পিনারদের দাপটে দিশেহারা ছিল পুরো ব্যাটিং লাইনআপ। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ঠিকই ঘুরে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তান। চতুর্থ দিনে শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২২২ রান তোলেছে তারা। শেষদিনে জয়ের জন্য দরকার ১২০ রান।

তৃতীয় দিন শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩২৯ রান সংরহ করেছিল শ্রীলঙ্কা। ৩৩৩ রানের লিড নিয়ে দিনের খেলা শুরু করেছিল লঙ্কানরা। চতুর্থ দিনে মাত্র ৮ রান যোগ করতেই বাকি এক উইকেট হারিয়ে অলআউট হয় দিমুথ করুণারত্নের দল। এরফলে পাকিস্তানের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩৪১ রানের।

শুরুর তিন দিনে গলে দাপট ছিল স্পিনারদের। তাই শেষের দুই দিনে এমন স্পিন বান্ধব উইকেটে ৩৪১ রান বড় লক্ষ্যই ছিল পাকিস্তানের জন্য। তবে বড় লক্ষ্য তাড়ায় শুরুটা দারুণ করে পাকিস্তানের দুই ওপেনার শফিক এবং ইমাম উল হক। মূলত এই দুজনের ব্যাটেই কাজটা অনেক সহজ হয়ে যায়।

দুই ওপেনারের ৮৭ রানের জুটি ভাঙ্গেন রমেশ মেন্ডিস। সাজঘরে ফেরার আগে ইমামের ব্যাট থেকে আসে ৩৫ রান। এরপর তিন নম্বরের মতো গুরুত্বপূর্ণ পজিশনে ব্যাটিং করতে নেমে আজহার আলি দ্রুতই ফিরেছেন। তার ব্যাট থেকে এসেছে ৬ রান। এরপর বাবর আর শফিক মিলে দলকে কক্ষপথে রাখেন। তৃতীয় উইকেট জুটিতে এই দুইজনের ১০১ রানের জুটিতে জয়ের পথে হাঁটছে পাকিস্তান। চতুর্থ দিনের শেষ বিকেলে সাজঘরে ফিরার আগে পাকিস্তান অধিনায়ক হাফসেঞ্চুরি তোলে নিয়েছেন।

দিনের শেষের দিকে ব্যাটিংয়ে নেমে বাকিটা সময় নিরাপদেই কাটিয়ে দিয়েছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান আর শফিক। এই ওপেনার অপরাজিত আছেন ১১২ রান করে। আর রিজওয়ান অপরাজিত আছেন ৭ রান করে। চতুর্থ দিন শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২২২ রান তোলেছে পাকিস্তান।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...