ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৩৫ কিলোমিটার যানজ‌ট

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে শুক্রবার ভোর থেকে শুরু হওয়া যানজট ক্রমেই আরও দীর্ঘ হচ্ছে। শনিবার (৯ জুলাই) সকাল পর্যন্ত সেতুর পূর্বপ্রান্ত থেকে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়ার বাইপাস পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

সরেজ‌মিনে মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব, এলেঙ্গা, সদর উপজেলার আশেকপুর, ঘারিন্দা, শিবপুর, রাবনা, বিক্রমহাটি রসুলপুর, পৌলি ও এলেঙ্গা এলাকায় যানজট দেখা গেছে।

যানজটের কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন ঈদযাত্রী ও পরিবহন সংশ্লিষ্টরা। সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে নারী-শিশু ও বয়স্কদের। অসহনীয় যানজটে গন্তব্যে যেতে দুই থেকে তিনগুণ বেশি সময় লাগছে। সড়কে পর্যাপ্ত বাস থাকলেও খোলা ট্রাক ও পিকআপে চড়ে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরছেন বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ।

উত্তরবঙ্গের ২২ জেলার মানুষজন ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক ব্যবহার করে থাকেন। ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে এই মহাসড়কে বাড়‌তি প‌রিবহন যোগ হয়। এতে ঢাকা সি‌টিতে চলাচল করা প‌রিবহনও যাত্রী নিয়ে উত্তরবঙ্গ যাচ্ছে। ফলে মহাসড়কে প‌রিবহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় তৈ‌রি হয়েছে যানজটের।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আতাউর রহমান সকাল ১০টায় জানান, সেতুর পূর্বপ্রান্ত থেকে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়া পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার এলাকায় যানজট রয়েছে। যানজট নিরসনে জেলা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ কাজ করছে। আশা করছি দুপুরের মধ্যেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

এদিকে সকালে মহাসড়ক পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি।

তিনি জানিয়েছেন, ঈদ ঘিরে মহাসড়কে যানজট নিরসরে পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সারের নেতৃত্বে সাত শতাধিক পুলিশ সদস্য কাজ করছেন। এরপরও যানজটে মানুষের ভোগান্তি হওয়ায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...