প্রস্তুতি ম্যাচে তামিমের সেঞ্চুরি, জয়-মুমিনুলের শূন্য

তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনটা তামিম ইকবাল আর নাজমুল হোসেন শান্তর কল্যাণে অসাধারণ কেটেছে বাংলাদেশের। তামিমের হার না মানা সেঞ্চুরিতে প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছয় উইকেটে ২৭৪ রান। যদিও এ দিন রানের খাতা খুলতেই পারেননি মাহমুদুল হাসান জয় এবং অফ-ফর্মে থাকা মুমিনুল হক।

টেস্ট শুরুর আগে সিডব্লিউআই প্রেসিডেন্টস একাদশ বিপক্ষে তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। ছুটি কাটিয়ে সাকিব আল হাসান এখনও না ফেরায় এ দিন টাইগারদের নেতৃত্ব দেন লিটন দাস। শুরুটা অবশ্য ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় সফরকারীরা। জেরেমি লুইসের বলে টেভিন ইমলাচকে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন জয়। ৬ বল খেললেও কোনো রান করতে পারেননি ডানহাতি এই ওপেনার।

জয় ফেরার পর নাজমুল হাসান শান্তকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন তামিম ইকবাল। তিনে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্বক ব্যাটিং করতে থাকেন শান্ত। আরেক ওপেনার তামিমও খানিকটা আক্রমণাত্বক ছিলেন। তবে সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দেখেশুনে ব্যাটিং করতে থাকেন তারা দুজন। দারুণ ব্যাটিংয়ে সিডব্লিউআই প্রেসিডেন্টস একাদশের বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন তামিম ইকবাল। ৮ চারে হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন বাঁহাতি এই ওপেনার। সেঞ্চুরির পথে থাকা তামিমকে দারুণভাবে সঙ্গ দেন শান্ত। এ ছাড়া তামিমের সঙ্গে জুটিও গড়েন শতরানের।

অনেকটা সময় জুড়ে ৪০ এর ঘরে আটকে থাকলেও অবশেষে হাফ সেঞ্চুরি পান শান্ত। হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেয়ার পর অবশ্য ইনিংসটা বড় করতে পারেননি শান্ত। বাঁহাতি এই ব্যাটারের ইনিংস থেমেছে ৫৪ রানে। শান্ত ফেরার পর আউট হয়েছেন মুমিনুলও। লম্বা সময় ধরে রানখরার মধ্য দিয়ে যাওয়া বাংলাদেশের সদ্য সাবেক হওয়া টেস্ট অধিনায়ক আউট হয়েছেন শূন্য রানে। ৬ বলে কোনো রান না করা মুমিনুলকে ফিরিয়েছেন ব্রায়ান চার্লস।

শান্ত ও মুমিনুলের বিদায়ের পর থিতু হতে পারেননি লিটন দাস। লুইসের বলে ইমলাচকে ক্যাচ দিয়ে মাত্র ৪ রানে ফিরেছেন ডানহাতি এই ব্যাটার। দিনের শুরু থেকেই দারুণ ব্যাটিং করছিলেন তামিম। তিনে নামা নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে গড়েছিলেন ১৪০ রানের জুটিও।

এ দিন সেঞ্চুরির দেখা পান তামিম। রস্টন চেজের বলে ১ রান নিয়ে ১৬২ বলে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন বাঁহাতি এই ওপেনার। সেঞ্চুরি করতে ১৪টি চার এবং একটি ছক্কা মেরেছেন তামিম। এরপর অবশ্য বলার মতো ইনিংস খেলেননি কেউই। ব্যক্তিগত ১১ রানে অবসরে যান ইয়াসির আলী রাব্বি। মেহেদী মিরাজের ব্যাটে আসে ৭ রান। ১৪০ রানে থেকে দ্বিতীয় দিন শুরু করবেন দেশ সেরা ওপেনার তামিম।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...