আবারও মেডিটেশনে ভ্যাট আরোপ!

আবারও মেডিটেশনের (ধ্যান) ওপর মূল্য সংযোজন কর (মূসক বা ভ্যাট) আরোপ করা হয়েছে। আগামী অর্থবছরের ঘোষিত বাজেটে এ মূসক আরোপের প্রস্তাব হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে মেডিটেশনে এই ভ্যাট আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে।
যদিও এর আগের বছরগুলোর বিভিন্ন বাজেটে মেডিটেশন সেবাকে মানসিক স্বাস্থ্যের জন্যে উপকারী উল্লেখ করে মূসক অব্যাহতির প্রস্তাব করা হয়েছিল। গত দুই বছরে করোনার আতঙ্ক আর আর্থিক অনটনে বিপর্যস্ত হয়েছে সাধারণ মানুষের জীবন। মেডিটেশন চর্চার মাধ্যমে তাদের মানসিক স্বাস্থ্য ও মনোবল অটুট রাখা যেতে পারে বলে মনে করছে সরকার। যা একাধিকবার অর্থমন্ত্রীর বাজেট বক্তৃতায় ফুটে উঠেছে।
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল গত অর্থ বছরের বাজেট বক্তৃতায় ‘মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্যে মেডিটেশন সেবার ওপর ভ্যাট অব্যাহতি আরও এক বছরের জন্যে বৃদ্ধি’র প্রস্তাব করেন।
করোনা মহামারীকালে ২০২০-২১ অর্থবছরেও মেডিটেশন সেবার ওপর থেকে ভ্যাট অব্যাহতির ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। সে বছর বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, বৈশ্বিক এ দুর্যোগকালে জনগণের মানসিক স্বাস্থ্য ও মনোবল অটুট রাখার স্বার্থে মেডিটেশন সেবার ওপর মূসক অব্যাহতি বলবৎ রাখার প্রস্তাব করছি।
২০১৭-১৮ অর্থ বছরের বাজেটে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ধ্যান অথবা যোগ-মেডিটেশনের ওপর আগামী দুই বছরে কোন ভ্যাট আরোপ না করার প্রস্তাব করছি।
২০১৪-১৫ অর্থ বছরের বাজেটেও তিনি বলেছিলেন, মেডিটেশন সেবা গ্রহণ করে হতাশাগ্রস্ত অনেক মানসিক ও শারীরিক ব্যাধিগ্রস্ত মানুষ মুক্তির প্রয়াস পায়। সে কারণে মেডিটেশন সেবার ওপর প্রযোজ্য মূসক প্রত্যাহারের প্রস্তাব করছি।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...