বিদায়ী সপ্তাহে দরপতন কমেছে পুঁজিবাজারে

বিদায়ী সপ্তাহে পুঁজিবাজারে দরপতন কিছুটা কমেছে। আলোচ্য সপ্তাহে দরপতন কমলেও সব ধরনের মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই)। কমেছে টাকার অংকে লেনদেনের পরিমাণও। সার্বিক বাজারে দরপতন থাকায় বাজার মূলধনেও নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৩ হাজার ৫৪ কোটি ২৩ লাখ ৫৯ হাজার ১২০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ২৩৫ কোটি ৭৩ লাখ ৫৭ হাজার টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে ১৮১ কোটি ৪৯ লাখ ৯৮ হাজার ৬০৫ টাকার বা ৫.৬১ শতাংশ লেনদেন কমেছে।

ডিএসইতে প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স সপ্তাহের ব্যবধানে ২০ দশমিক ২৭ পয়েন্ট বা  দশমিক ৩২ শতাংশ কমে ৬ হাজার ২৩৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

গত সপ্তাহে বাজারমূলধনের শীর্ষ৩০  কোম্পানির মূল্যসূচক ডিএস৩০ আগের সপ্তাহের চেয়ে ৯ দশমিক ২৯ পয়েন্ট বা দশমিক ৪০ শতাংশ কমে ২ হাজার ৩০৭ পয়েন্টে নেমেছে।

অন্যদিকে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৯.৩৩ পয়েন্ট বা  দশমিক ৬৭ শতাংশ কমেছে।

ডিএসইতে গত সপ্তাহে ৩৯৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কেনাবেচা হয়। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৬১টির, কমেছে ১৯৫টির। আর ৩১টির দাম ছিল অপরিবর্তিত।

অন্যদিকে ডিএসইতে বাজার মূলধনেও নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে ১ হাজার ৮৬৯ কোটি ৬৬ লাখ ৯৭ হাজার ১৬১ টাকা বা ১ দশমিক ৩৭ শতাংশ বাজার মূলধন কমেছে।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৫০ লাখ ৯ হাজার ৮৭২ কোটি ১৭ লাখ ৮৭ হাজার  টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৫০ লাখ ৮ হাজার ২ কোটি ৫০ লাখ ৯ হাজার  টাকায়।

অর্থসূচক/এসএ/

 

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...