সুইডেন-ফিনল্যান্ডকে তুরস্কের হুমকি

হুমকি দিলো তুরস্ক। সুরক্ষা নিয়ে তাদের দাবি না মানলে, সুইডেন ও ফিনল্যান্ডকে ন্যাটোর সদস্য হতে দেবে না তারা। দুই দেশই ন্যটোর সদস্য হওয়ার জন্য আবেদন করেছে। এদিকে সুইডেন ও ফিনল্যান্ডের প্রতিনিধিদল এখন তুরস্কে। তারা সেখানে তুরস্কের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে আলোচনা করছে।

তুরস্কের দাবি, সুইডেন ও ফিনল্যান্ডকে কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি বা পিকেকে ও সিরিয়ায় কুর্দিশ মিলিশিয়া ওয়াইজিপি-কে সমর্থন করা থেকে সরে আসতে হবে। তাদের জঙ্গি সংগঠন হিসাবে ঘোষণা করতে হবে। এই সংগঠনগুলি তাদের সুরক্ষার ক্ষেত্রে বড় বিপদ।

সুইডেনের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্টেট সেক্রেটারি অস্কার স্টেনস্টর্ম এবং ফিনল্যান্ডের প্রতিনিধিদলের নেতা সেদেশের স্টেট সেক্রেটারি জুক্কা স্যালোভারা। তারা তুরস্কের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন এবং ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেদাত ওনালের সঙ্গে প্রেসিডেন্টের প্রাসাদে পাঁচ ঘণ্টা ধরে আলোচনা করেছেন।

পরে সাংবাদিক সম্মলনে কালিন জানিয়েছেন, তুরস্কের মনে হয়েছে, সুইডেন ও ফিনল্যান্ড ইতিবাচক মনোভাব দেখাচ্ছে। কিন্তু তুরস্ক যে আপত্তি জানিয়েছে, তা নিয়ে দুই দেশকে নির্দিষ্ট কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হবে। বৈঠকে দুই দেশের প্রতিনিধিদলকে এই বিষয়টা ভালো করে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের পর সুইডেন ও ফিনল্যান্ড উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। ফিনল্যান্ডের সঙ্গে রাশিয়ার এক হাজার ৩০০ কিলোমিটারের সীমান্ত আছে। সুইডেন হলো ফিনল্যান্ডের প্রতিবেশী দেশ।

তুরস্ক অভিযোগ করেছে, দুই দেশই পিকেকে-কে নিরাপদ আশ্রয় দেয় এবং জঙ্গিদের সাহায্য করে। ২০১৯ সালে ওয়াইজিপি-র উপর তুরস্কের হামলার পর সুইডেন ও ফিনল্যান্ড তুরস্ককে অস্ত্র বিক্রি করা বন্ধ করে দিয়েছে।

সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তারা কোনো জঙ্গি সংগঠনকে অর্থ বা অস্ত্র দিয়ে সাহায্য করেন না। সূত্র: ডিডাব্লিউ, এপি, এএফপি

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...