বর্ণবৈষম্যের অভিযোগ থেকে মুক্ত বাউচার

অনেক বিপত্তির পর বর্ণবৈষম্যের অভিযোগ থেকে মুক্তি পেলেন মার্ক বাউচার। গত ফেব্রুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার এই প্রধান কোচের বিরুদ্ধে বর্ণবৈষম্যের অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়। তিন মাস পর সেই অভিযোগ থেকে রেহাই পেলেন তিনি।

গত বছর বাউচারের বিরুদ্ধে বর্ণবৈষম্যের অভিযোগ আনেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ক্রিকেটার পল অ্যাডামস। তিনি জানিয়েছিলেন, জাতীয় দলে যে ক্রিকেটাররা ‘brown sh*t’ বলে ডাকতেন, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন বাউচার। সেই সঙ্গে সাবেক সহকারী কোচ এনোক এনকোউইও বাউচারের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আচরণের অভিযোগ এনেছিলেন।

এমন অভিযোগের পর অবশ্য বাউচার অস্বীকার করেছিলেন। এবার তাকে দুটি অভিযোগ থেকেই রেহাই দিয়েছে প্রোটিয়া ক্রিকেট বোর্ড। মূলত তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা দুই প্রত্যক্ষদর্শী শুনানিতে সাক্ষ্য দিয়ে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। এর ফলেই তার বিরুদ্ধে সকল ডিসিপ্লিনারি চার্জ তুলে নিয়েছে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হিসেবেও তিনি টিকে যাচ্ছেন। প্রথমে বাউচারের বিপক্ষে অভিযোগের শুনানির দিন ধার্য্য করা হয়েছিল ৭ থেকে ১১ মার্চের মধ্যে। তবে সেই সময় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রোটিয়াদের সিরিজ ছিল। আর ১৮ মার্চ থেকে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে লড়ছিল প্রোটিয়ারা।

এমন অবস্থায় শুনানির সময় পিছিয়ে দেয়ার আবেদন করেছিলেন বাউচার। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে শুনানির নতুন তারিখ ধার্য্য করা হয় ১৬ মে। তবে সাক্ষীরা সরে দাঁড়ানোয় এর আগেই মুক্ত হলেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার। অভিযোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার পর স্বস্তি নিয়ে বাউচার বলেছেন, ‘গত কয়েক মাস আমার ও পরিবারের জন্য সত্যিই খুব কঠিন সময় ছিল। শেষ পর্যন্ত এটা শেষ হয়েছে ভেবে ভালো লাগছে। আমার বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ যে ধোপে টেকার নয়, মেনে নিয়েছে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা আমি এখন আমার কাজে পূর্ণ মনোযোগ দিতে পারব।’

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...