ভারতীয় রুপির ভয়াবহ দরপতন

আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের মূল্য বৃদ্ধি এবং লাগামহীন বাণিজ্য ঘাটতির প্রভাবে কোনঠাসা বিশ্বের অন্যতম বড় অর্থনীতির দেশ ভারতের মুদ্রা রুপি। আজ ডলারের বিপরীতে এই মুদ্রার বড় ধরনের মূল্য পতন হয়েছে। ডলারের মূল্য ৭৭ রুপি ছাড়িয়ে গেছে।

বছরের শুরু থেকেই মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় মুদ্রা রুপির মান ছিল নিম্নমুখী। তারই ধারাবাহিকতায় রেখে আজ সোমবার (৯ মে) স্মরণকালের সব থেকে বড় দরপতন ঘটেছে রুপিতে।

প্রতি ১ মার্কিন ডলারের বিপরীতে রুপির মান দাঁড়িয়েছে ৭৭ দশমিক ৪০ রুপিতে। রুপির মান এর আগে কখনই এতটা নিচে নামেনি। এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নানামুখী সংকটের কারণে রুপির মান এতটা নেমে গেছে।

একদিকে চীনে করোনার নতুন সংক্রমণের ফলশ্রুতিতে দেওয়া লকডাউনে, অন্যদিকে ইউক্রেনের যুদ্ধের প্রভাবে বেসামাল হয়ে পড়েছে রুপির মান। এছাড়াও উচ্চ সুদ-হারের আশঙ্কার ছায়াও পড়েছে এর ওপরে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির সংশ্লিষ্ট অর্থনীতিবিদরা।

খবর বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড

এর আগে চলতি মাসের ৬ তারিখে ডলারের বিপরীতে রুপির মান দাঁড়িয়েছিল ৭৭ দশমিক শূন্য ৫ এ। এটিই ছিল রুপির সর্বনিম্ন মান।

তবে আজ সোমবার (৯ মে) রুপির মান আরও কমে আসায় ছাড়িয়েছে অতীতের সব পতনের রেকর্ড।

অন্যদিকে ভারতীয় রুপির মান পতনের ফলে বাংলাদেশী টাকার কাছেও ধরাশায়ী হচ্ছে এই মুদ্রা। বর্তমানে ব্যাংকগুলোতে ১ টাকা ১৪ পয়সায় মিলছে এক রুপি। আর ১০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে অন্তত ৮৭ রুপি।

টাকার বিপরীতে রুপির মান বিশ্লেষণে দেখা গেছে, এক মাসে বাংলাদেশের মুদ্রা টাকার বিপরীতে ভারতীয় রুপির দরপতন ঘটেছে ৫ দশমিক ১৩ শতাংশ। ডলারের বিপরীতে রুপি ৪ দশমিক ১৪, ইউরোর বিপরীতে ৫ দশমিক ৪৫ ও পাউন্ডের বিপরীতে ৪ দশমিক ০২ শতাংশ কমেছে।

অর্থসূচক/এমআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...