২ বছরে ৯% শেয়ার বাজারে ছাড়তে চায় ওয়ালটন

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের কোম্পানি ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসির উদ্যোক্তারা আগামী ২ বছরে তাদের কাছে থাকা শেয়ার থেকে ৯ দশমিক ০৩ শতাংশ শেয়ার ছাড়তে আগ্রহী। এর বড় অংশই সরাসরি বাজারে বিক্রি করা হবে। এছাড়া কিছু শেয়ার ট্রাস্টের নামে স্থানান্তর করা হবে। আরও কিছু উপহার হিসেবে দেওয়া হবে  উদ্যোক্তাদের স্বজনদেরকে।

সম্প্রতি কোম্পানিটির পক্ষ থেকে এমন একটি পরিকল্পনা পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) জমা দেওয়া হয়েছে। এই শেয়ার ছাড়ার মাধ্যমে কোম্পানিটি বাজারে ফ্রি ফ্লোট শেয়ারের সংখ্যা ১০ শতাংশে উন্নীত করতে চায়।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ওয়ালটনসহ তিনটি কোম্পানিকে এক বছরের মধ্যে বাজারে ফ্রি ফ্লোট শেয়ারের সংখ্যা বাড়িয়ে ন্যুনতম ১০ শতাংশে উন্নীত করার নির্দেশ দিয়েছিল বিএসইসি। বাজারে কোম্পানিগুলোর শেয়ারের তারল্য বাড়ানো এবং শেয়ারের মূল্য অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধির রাশ টানতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়। অন্য দুটি কোম্পানি হচ্ছে-ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি) ও বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ।

বিএসইসির নির্দেশের আলোকে ওয়ালটনের পক্ষ থেকে শেয়ার ছাড়ার আলোচিত পরিকল্পনাটি জমা দেওয়া হয় বিএসইসির কাছে। অবশ্য এটি পরিমার্জিত প্রস্তাব বা পরিকল্পনা। কোম্পানির পক্ষ থেকে এর আগেও একটি প্রস্তাব জমা দেওয়া হয়েছিল। ওই প্রস্তাবে ৩ বছরের মধ্যে ৪ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ শেয়ার ছেড়ে ফ্রি ফ্লোট শেয়ারের সংখ্যা ৫ শতাংশে উন্নীত করার কথা বলা হয়েছিল।

বিএসইসি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানিয়েছে, বিএসইসি ওয়ালটনের জমা দেওয়া পরিকল্পনাটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছে। এর মধ্যে ট্রাস্টের কাছে শেয়ার স্থানান্তরের বিষয়ে কোম্পানিটির কাছে আরও তথ্য চাওয়া হতে পারে। আর বিষয়টি নিয়ে পরবর্তী কমিশন বৈঠকে আলোচনা হতে পারে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...