স্ত্রী ও দুই মেয়েকে হত্যা করে পালালেন চিকিৎসক

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বালিয়াখোরা ইউনিয়নের আঙ্গুরপাড়া গ্রামে একটি ঘর থেকে মা ও দুই মেয়ের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন নিহত নারীর স্বামী দন্ত চিকিৎসক আছাদুজ্জামান।

নিহতরা হলেন, ওই এলাকার দন্ত চিকিৎসক আছাদুজ্জামানের স্ত্রী লাবনী আক্তার (৩৫), মেয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছোঁয়া আক্তার (১৬) ও আরেক মেয়ে কথা আক্তার (১২)।

এলাকাবাসীর ধারণা, রোববার (৮ মে) ভোর ৩টা থেকে ৫টার মধ্যে দন্ত চিকিৎসক আছাদুজ্জামান তার স্ত্রী ও দুই মেয়েকে গলা কেটে হত্যার পর পালিয়ে যান। সকালে উঠে এলাকাবাসী ঘরে মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ মরদেহগুলো উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

শিবালয় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুর জাহান লাবনী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আছাদুজ্জামান ঋণগ্রস্ত ছিলেন। সেই হতাশা থেকে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা গেছে। ঘাতক পুলিশের নজরদারিতে আছেন। শিগগিরই তাকে গ্রেফতার করা হবে।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...