দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে ইন্দোনেশিয়ায় বিক্ষোভ

ভোজ্য তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে অংশ নিয়েছিলেন ইন্দোনেশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা৷ প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদোর কার্যকালের মেয়াদ বৃদ্ধির প্রতিবাদও করছিলেন৷ এ সময় জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়ে বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করে পুলিশ। দক্ষিণ সুলাওয়েসি, পশ্চিম জাভা এবং জাকার্তা-সহ ইন্দোনেশিয়ার বেশ কিছু এলাকায় প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল৷

সংবাদসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীদের পার্লামেন্টের বাইরে ছুটতে দেখা গেছে৷ কম্পাস টিভি জানিয়েছে, পাথর ছুঁড়তেও দেখা গেছে তাদের৷

ঘটনার পর জাকার্তায় পুলিশ প্রধান ফাদিল ইমরান এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক এই সমাবেশে অংশ নিয়েছিলেন৷ পড়ুয়া নয় এমন একটি গোষ্ঠীর প্রতিবাদের সময় পদপিষ্ট হয়ে গুরুতর জখম হয়েছেন ওই শিক্ষক৷’

এদিকে শরিক দলের সমর্থনের মাধ্যমে কার্যকালের মেয়াদ বাড়ানোর পরিকল্পনার বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো৷ কিন্তু এর আগে সংবিধানে সংশোধনী এনে কিংবা ২০২৪ সালের নির্বাচন পিছিয়ে প্রেসিডেন্টের মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়টিতে প্রকাশ্যে সমর্থন জানিয়েছেন প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা৷ বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম গণতন্ত্রের দেশ হিসেবে পরিচিত এই দেশে বিষয়টা নিয়ে জল্পনা আরো বেড়েছে৷

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া ছাত্র মোহাম্মদ লুৎফি রয়টার্সকে বলেন,‘কীভাবে অভিজাত গোষ্ঠীর একটা অংশ ইচ্ছে করে নির্বাচনে দেরি করাচ্ছে সেটা আমাদের কাছে স্পষ্ট৷ সংবিধান লঙ্ঘন করা হচ্ছে৷’

১৯৯৮ সালে প্রেসিডেন্ট সুহার্তোকে ক্ষমতাচ্যুত করার ক্ষেত্রে ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম ভূমিকা ছিল৷ দুটি মেয়াদের পর আবারও একই প্রেসিডেন্ট কার্যভার গ্রহণ করলে গণতন্ত্রের কাঠামো নিয়ে সংশয় তৈরি হয়- জোকো উইদোদোর ক্ষেত্রেও এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা৷

জনগণের মধ্যে জল্পনা বন্ধ করতে ৬০ বছর বয়সি জোকো মন্ত্রী এবং নিরাপত্তা প্রধানদের এ বিষয়ে আলোচনা বন্ধ করার আহ্বান জানান৷ ২০২৪ সালে পরিকল্পনামাফিক নির্বাচন হবে, এমনটাও জানান বর্তমান প্রেসিডেন্ট৷

সম্প্রতি সইফুল মুজানি রিসার্চ এবং কনসাল্টিংয়ের একটি সমীক্ষা অনুযায়ী, ৭০ শতাংশ ইন্দোনেশীয় নাগরিক বর্তমান প্রেসিডেন্টের কার্যকালের মেয়াদবৃদ্ধিকে সমর্থন করেন না৷ সূত্র: ডিডাব্লিউ, রয়টার্স

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...