এবছর বাংলাদেশিদের হজে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে: ধর্মপ্রতিমন্ত্রী

করোনা পরিস্থিতির উন্নতিসহ সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এবছর বাংলাদেশিদের হজে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন ধর্মপ্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান। এ বিষয়ে রাজকীয় সৌদি সরকার সহসাই ডিক্রি জারি করবেন বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে হজে গমণের সুযোগ তৈরি হলে হজযাত্রীরা যাতে সুষ্ঠুভাবে হজ পালন করতে পারেন এ বিষয়ে আমাদের প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি রয়েছে। পূর্বের যে কোনো সময়ের চেয়ে আগামী হজকে আরও উন্নত, নির্বিঘ্ন ও নিরাপদ করতে সম্ভাব্য সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর আশকোনায় বাংলাদেশ হজ অফিস সভাকক্ষে হজের পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে হজ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত মন্ত্রণালয়/বিভাগ/সংস্থা ও সংগঠনের অংশীজনের সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ থেকে কতজন হজে যেতে পারবেন তা সৌদি-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক হজ চুক্তিতে নির্ধারিত হবে।

তিনি বলেন, ২০১৯ সালে বাংলাদেশের প্রায় ৪৫ শতাংশ হজযাত্রীর সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন বাংলাদেশেই সম্পন্ন করা হয়েছিল। এবছর বাংলাদেশের পূর্ণসংখ্যক হজযাত্রীর সৌদি আরব অংশের ইমিগ্রেশন বাংলাদেশেই সম্পন্ন করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, এর আগে যারা হজের নিবন্ধন করেছেন তারাই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হজে যেতে পারবেন। কোনোক্রমেই ক্রমধারা (সিরিয়াল) ভঙ্গ কর হবে না। হজের পুরো কার্যক্রম অটোমেশন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বিমানের পর্যাপ্ত ফ্লাইটের ব্যবস্থা করা, প্রথম হতে শেষ পর্যন্ত শিডিউল ঠিক রাখা, সহজে টিকেট প্রাপ্তি, হজ যাত্রীদের লাগেজ পরিবহন, পাসপোর্ট প্রাপ্তি সহজীকরণ, হজযাত্রীদের স্বাস্থ্যসেবা, সৌদি আরব অংশে খাবার, আবাসন ও পরিবহনসহ যাবতীয় সেবার মান উন্নয়নে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে এখন থেকেই সম্ভাব্য সব প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে।

ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী এনামুল হাসান এনডিসির সভাপতিত্বে সভায় ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং হজ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত মন্ত্রণালয়/বিভাগ/সংস্থা ও সংগঠনের প্রতিনিধিগণ অংশগ্রহণ করেন।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...