বেলারুশে রাশিয়ার আলোচনার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইউক্রেনের  

ইউক্রেনের সাথে আলোচনার জন্য রাশিয়ার পাঠানো প্রতিনিধিদের একটি দল বেলারুশে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে মস্কো। কিন্তু ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি রাশিয়ার আলোচনার এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন।

তিনি বলেছেন, রাশিয়া যদি বেলারুশ ভূখণ্ড থেকে ইউক্রেনে হামলা বন্ধ করে তবে মিনস্কে আলোচনা সম্ভব হতে পারে। এছাড়া এই সংকটের সমাধানে অন্যান্য স্থানে আলোচনার দরজা খোলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলেনস্কি।

ইউক্রেনের এই প্রেসিডেন্ট বলেছেন, আপনার ভূখণ্ড থেকে যদি কোনো আগ্রাসী পদক্ষেপ না নেওয়া হয়, তাহলে আমরা মিনস্কে কথা বলতে পারি। এছাড়া অন্যান্য শহর আলোচনার স্থান হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

তিনি বলেন, আমরা অবশ্যই শান্তি চাই। আমরা সাক্ষাৎ করতে চাই। আমরা যুদ্ধ শেষ করতে চাই। আমরা আলোচনার স্থান হিসেবে ওয়ারশ, ব্রাতিসলাভা, বুদাপেস্ট, ইস্তাম্বুল, বাকুর নাম প্রস্তাব করেছি।

ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, অন্য এমন একটি দেশের যেকোনো শহর আমাদের জন্য যথাযথ হবে; যাদের ভূখণ্ড থেকে আমাদের দিকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়নি। সৎ আলোচনার জন্য এটিই একমাত্র উপায় এবং সত্যিই যুদ্ধের অবসান ঘটাতে পারে।

এদিকে, প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির উপদেষ্টা মিখাইলো পোডোলিয়াক বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, কোনো ধরনের আল্টিমেটাম ছাড়াই সামরিক আগ্রাসনের ব্যাপারে রাশিয়ার সাথে প্রকৃত আলোচনা চায় ইউক্রেন। আলোচনার জন্য বেলারুশে মস্কোর প্রতিনিধি পাঠানোর সিদ্ধান্ত এক ধরনের প্রোপাগান্ডা।

এর আগে, ক্রেমলিনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, রাশিয়ার একটি প্রতিনিধি দল প্রতিবেশী বেলারুশের গোমেল শহরে পৌঁছেছে এবং সেখানে তারা ইউক্রেনের প্রতিনিধিদের জন্য অপেক্ষা করছে। এ ব্যাপারে মিখাইলো পোডোলিয়াক বলেন, রুশ প্রতিনিধিরা গোমেলে পৌঁছেছে, এটি একেবারে অর্থহীন। এখন তারা বলছে, আমরা অপেক্ষা করছি।

‘জেলেনস্কির অবস্থান অপরিবর্তিত রয়েছে। কেবলমাত্র প্রকৃত আলোচনা হতে পারে, কোনো আল্টিমেটাম নয়।’

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...