রাজধানীতে বাসচাপায় একই পরিবারের ৩ জন নিহত

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় যাত্রীবাহী বাস একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দিলে একই পরিবারের তিন সদস্য নিহত হন।

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) সকাল ৭টার দিকে মাতুয়াইল মা ও শিশু স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের সামনের মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- আব্দুর রহমান (৬৫) ও তার মেয়ে শারমিন (৩৮) এবং মেয়ের জামাই রিয়াজুল (৪৮)। এ সময় শারমিন-রিয়াজুল দম্পতির মেয়ে মিষ্টি (১১) ও অটোরিকশা চালক আহত হন।

জানা গেছে, নিহত শারমিনের বাড়ি বরিশাল উজিরপুরে। তার মা সাহেদা বেগম মহাখালী ক্যানসার হাসপাতালে ভর্তি। বাবাকে নিয়ে তিনি দেশের বাড়ি থেকে ঢাকায় তার মাকে দেখতে আসছিলেন। সকালে বরিশাল থেকে লঞ্চযোগে সদরঘাটে আসেন। সেখান থেকে সিএনজি যোগে মহাখালী যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার স্বীকার হন।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে কক্সবাজারগামী সেন্টমার্টিন পরিবহনের একটি গাড়ি মাতুয়াইলে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হয়েছেন। তাদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেলের মর্গে পাঠানো হয়েছে। চালকসহ গুরুতর আহত দুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত আব্দুর রহমানের ছেলে তানভীর আহমেদ বলেন, আমার মা মহাখালী ক্যান্সার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার অবস্থা গুরুতর। মাকে দেখতে গ্রামের বাড়ি বরিশালের উজিরপুর থেকে বাবা, বোন, ভগ্নিপতি ও তাদের এক সন্তান ভোরে সদরঘাট এসে নামেন। সেখান থেকে আমার বাসা মাতুয়াইলে আসার পথে যাত্রাবাড়ী সড়কে দুর্ঘটনার শিকার হন তারা। সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিন জনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত শিশু মিষ্টি চিকিৎসাধীন।

ছেলে তানভীর ঢাকা মাতুয়াইলে ব্যবসা করেন, মাতুয়াইলেই থাকেন। তিনি জানান, তাদের প্রথমে আমার বাসায় ওঠার কথা রয়েছে, সেখান থেকে অসুস্থ মায়ের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।

এ তথ্য নিশ্চিত করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, মৃতদেহ তিনটি হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...