করোনায় একদিনে আরও ৮ হাজার মানুষের মৃত্যু

প্রতিদিন লাখো মানুষের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হচ্ছে। গতকাল প্রায় ২৮ লাখ মানুষের করোনা শনাক্তের রেকর্ড হলেও গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিতের সংখ্যা সেই রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে। গত একদিনে প্রায় সাড়ে ৩১ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসটিতে। নতুন সংক্রমিতদের নিয়ে এই সংখ্যাটা ৩১ কোটি ৭৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। একই সময়ে সারা বিশ্বে মারা গেছেন আট হাজারের বেশি মানুষ।

ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮ হাজার ৩২ জন। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩১ লাখ ৪৫ হাজার ৯১৬ জন। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩১ কোটি ৭৩ লাখ ২২ হাজার ৬২০ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ১৪ হাজার ৪৯৪ জন এবং মারা গেছেন ২ হাজার ২৬৯ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৬ কোটি ৪৩ লাখ ৪৪ হাজার ৬৯৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৮ লাখ ৬৬ হাজার ৮৮২ জন মারা গেছেন।

দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭৪৫ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১৭ হাজার ৯৪৬ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৭ লাখ ২ হাজার ১৫০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ১৮ হাজার ৪৩২ জনের।

যুক্তরাজ্যে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ২৯ হাজার ৫৮৭ জন এবং মারা গেছেন ৩৯৮ জন। মহামারির শুরু থেকে এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৪৮ লাখ ৬২ হাজার ১৩৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৫১ হাজার ৭ জন মারা গেছেন।

ইতালিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৯৬ হাজার ২২৪ জন এবং মারা গেছেন ৩১৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৬১ হাজার ৭১৯ জন এবং মারা গেছেন ২৪৬ জন। মহামারির শুরু থেকে এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ২৯ লাখ ৩৪ হাজার ৯৮২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ২৬ হাজার ৩০৫ জন মারা গেছেন।

স্পেনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৭৯ হাজার ১২৫ জন এবং মারা গেছেন ১২৫ জন। জার্মানিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজার ৫৪২ জন এবং মারা গেছেন ৩৩১ জন। ইউক্রেনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ১১৭ জন এবং মারা গেছেন ১৯৩ জন।

ব্রাজিলে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৩৮ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৮৮ হাজার ৪৬৪ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ২৭ লাখ ১৮ হাজার ৬০৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ২০ হাজার ৪১৯ জনের। এ ছাড়া পোল্যান্ডে ৬৮৪ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ১৮১ জন, মেক্সিকোতে ১৬২ জন, তুরস্কে ১৪৫ জন, ফিলিপাইনে ১৪৪ জন এবং কানাডায় ১২৪ জন মারা গেছেন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ বছরের ১১ মার্চে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...