শনাক্তের ৮১ শতাংশই ঢাকাতেই

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন প্রায় ৩ হাজার জন। এ সময়ে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১১ শতাংশ ছাড়িয়েছে। মোট শনাক্তের ৮১ দশমিক ৪৮ শতাংশই শনাক্ত হয়েছে ঢাকা জেলায়।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৯১৬ জন, আর শনাক্তের হার ১১ দশমিক ৬৮ শতাংশ। শনাক্তের মধ্যে দুই হাজার ৩৭৬ জনই ঢাকা বিভাগের ঢাকা জেলার। অর্থাৎ, মোট শনাক্তের ৮১ দশমিক ৪৮ শতাংশই শনাক্ত হয়েছে ঢাকা জেলায়। স্বাস্থ্য অধিদফতরের উচ্চ ঝুঁকির তালিকায় রয়েছে ঢাকা ও  রাঙ্গামাটি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির তথ্যানুযায়ী,গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা মহানগরসহ ঢাকা জেলায় শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৩৭৬ জন। এ বিভাগে মোট শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৪৩৪ জন। ঢাকা জেলা ছাড়া এ বিভাগের সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলায় ২৫  জন। এরপর রয়েছে গাজীপুরে  ১৩ জন, ফরিদপুরে শনাক্ত হয়েছেন পাঁচ জন, মানিকগঞ্জ ও টাঙ্গাইলে তিন জন করে, গোপালগঞ্জ ও রাজবাড়ীতে দুই জন করে, আর মুন্সিগঞ্জে শনাক্ত হয়েছেন একজন ।

ময়মনসিংহ বিভাগের ময়মনসিংহ জেলায় শনাক্ত হয়েছেন ১৪ জন, নেত্রকোনায় একজন, জামালপুরে পাঁচ জন, আর শেরপুরে শনাক্ত হয়েছেন ছয় জন।

চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম জেলায় শনাক্ত হয়েছেন ২২২ জন, নোয়াখালী আর কুমিল্লা জেলায় শনাক্ত হয়েছেন ১১ জন করে, কক্সবাজার, বান্দরবান ও চাঁদপুরে চার জন করে, লক্ষ্মীপুরে পাঁচ জন, রাঙ্গামাটিতে তিন জন, আর ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও ফেনীতে শনাক্ত হয়েছেন একজন করে।

রাজশাহী বিভাগের রাজশাহী জেলায় ২৬ জন, নাটোরে চার জন, নওগাঁয়ে দুই জন, পাবনায় তিন জন, সিরাজগঞ্জে একজন, বগুড়ায় ১৬ জন, আর জয়পুরহাটে শনাক্ত হয়েছেন ছয় জন।

রংপুর বিভাগের রংপুরে তিন জন, পঞ্চগড় আর কুড়িগ্রামে একজন করে, আর দিনাজপুরে শনাক্ত হয়ছেন সাত জন।

খুলনা বিভাগের চুয়াডাঙ্গা ও মাগুরা জেলায় একজন করে, যশোরে ৩০ জন, ঝিনাইদহে সাত জন, খুলনায় ৯ জন, কুষ্টিয়ায় ১০ জন, আর নড়াইলে শনাক্ত হয়েছেন দুই জন।

বরিশাল বিভাগের বরিশাল জেলায় ছয় জন, বরগুনা ও ঝালকাঠিতে দুই জন করে, আর পটুয়াখালীতে শনাক্ত হয়েছেন একজন।

সিলেট বিভাগের সিলেট জেলায় ৩৩ জন, হবিগঞ্জে ১৩ জন, আর মৌলভীবাজারে শনাক্ত হয়েছেন পাঁচ জন।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...