ইউরোপীয়ান পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট মারা গেছেন

ইউরোপীয়ান পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট ডেভিড স্যাসোলি ৬৫ বছর বয়সে মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন তার মুখপাত্র। গত দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে অসুস্থ ছিলেন ইতালিয়ান এই সাবেক সাংবাদিক এবং মধ্য-বামপন্থী রাজনীতিবিদ। অসুস্থতার কারণে বাতিল করা হয় তার সব আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতায় মারাত্মক জটিলতার কারণে গত মাসে ইতালির একটি হাসপাতালে ভর্তি হন ডেভিড স্যাসোলি। তার মুখপাত্র রবার্তো সুইলো এক টুইট বার্তায় জানান, আভিয়ানোর একটি হাসপাতালে মঙ্গলবার ভোরে মারা যান ডেভিড স্যাসোলি।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ডেভিড স্যাসোলিকে স্ট্রাসবার্গের একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তাকে তীব্র নিউমোনিয়ার চিকিৎসা দেওয়া হয়। নভেম্বরে ফের রাজনৈতিক কর্তব্য পালন শুরু করেন তিনি।

ইউরোপীয়ান পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্টের পদে ফের নির্বাচন করবেন না বলে আগেই জানিয়েছিলেন ডেভিড স্যাসোলি। ফলে এই মাসের শেষের দিকে তার বিকল্প নির্বাচিত করার পরিকল্পনা আগে থেকেই রয়েছে।

এক সময়ে টেলিভিশনে সংবাদ পাঠ করা ডেভিড স্যাসোলি ২০১৯ সালের জুলাই মাসে ৭০৫ আসনের ইউরোপীয়ান পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এই পদটিকে জোটটির শীর্ষ পদ বলে বিবেচনা করা হয়। অধিবেশণ পরিচালনা ছাড়াও পার্লামেন্টের কার্যক্রম তদারকি করেন তিনি। তিনি মধ্য-বামপন্থী প্রগ্রেসিভ অ্যালায়েন্বস অব সোস্যালিস্ট অ্যান্ড ডেমোক্র্যাটস পার্টির সদস্য ছিলেন।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...