পাকিস্তানে ভারী তুষারপাতে গাড়িতে আটকা পড়ে নিহত ২১

ভারী তুষারপাতে পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় গেইলাত এলাকায় গাড়ির ভেতরে আটকা পড়ে অন্তত ২১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। শনিবার দেশটির পাঞ্জাব প্রদেশের সীমান্ত লাগোয়া গেইলাতের মুরি এলাকায় তুষারপাতের ঘটনায় আটকা পড়া আরও এক হাজারের বেশি মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে।

গাড়িতে আটকা পড়াদের প্রাণহানির এই ঘটনায় গেইলাতের মুরি এলাকায় দুর্যোগ ঘোষণা করা হয়েছে। দেশটির সেনাবাহিনী ও অন্যান্য আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা সড়ক পরিষ্কার এবং আটকা পড়া লোকজনকে উদ্ধারে অভিযান শুরু করেছেন।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গত কয়েক দিনে মুরি এলাকায় ১০ হাজারের বেশি যানবাহন প্রবেশ করেছে। এসব যানবাহনের বেশিরভাগ আরোহীই পর্যটক। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ বলেছেন, ভারী তুষারপাতের কারণে মুরির মহাসড়কে প্রায় এক হাজার গাড়ি আটকা পড়েছে।

পাকিস্তানের অন্যতম পার্বত্য পর্যটন নগরী মুরি। রাজধানী ইসলামাবাদের উত্তরের এই শহর পর্যটকদের কাছে তুমুল জনপ্রিয়। শুক্রবার স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, তুষারপাতের কারণে পর্যটকরা আটকা পড়ছেন।

 

মুরি পুলিশের কর্মকর্তারা এএফপিকে বলেছেন, অস্বাভাবিক ভারী তুষারপাত দেখতে গত কয়েক দিনে মুরিতে ১০ হাজারের বেশি গাড়ি প্রবেশ করেছে। যে কারণে মুরির মহাসড়কে ব্যাপক যানজটও দেখা দিয়েছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, শনিবার দুপুর পর্যন্ত গাড়িতে আটকা এক হাজার ১২২ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া কয়েকটি গাড়ির ভেতরে ২১ জনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। যাদের মধ্যে ৯ জন শিশুও রয়েছে।

এক ভিডিও বার্তায় দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ বলেছেন, গত ১৫ থেকে ২০ বছরের মধ্যে এবারই সর্বোচ্চসংখ্যক পর্যটক পাহাড়ি এলাকা মুরিতে গেছেন। যে কারণে সেখানে বড় ধরনের সংকট তৈরি হয়েছে।

 

মুরি এবং গেইলাতে ৬ থেকে ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত ভারী তুষারপাত হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে পাকিস্তানের আবহাওয়া বিভাগ।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...