লাথামের দেড়শো, রান বাড়িয়েই চলেছে নিউজিল্যান্ড

মাউন্ট মঙ্গানুইতে প্রথম টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়ে সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে বাংলাদেশ। এদিকে ক্রাইস্টচার্চে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মুমিনুল হক। এদিন বিনা উইকেটে ৯২ রান তুলে মধাহ্নভোজের বিরতিতে যায় কিউইরা।

ক্রাইস্টচার্চে টস জিতে বোলিং নিলেও সুবিধা করতে পারেনি বাংলাদেশ। নতুন বলে প্রথম ঘণ্টা সতর্কতার সঙ্গে কাটিয়েছে নিউজিল্যান্ডের দুই ওপেনার টম লাথাম এবং উইল ইয়ং। মাউন্ট মঙ্গানুইতে প্রথম দিনের প্রথম ঘণ্টায় তাসকিন আহমেদ এবং শরিফুল ইসলাম দুর্দান্ত বোলিং করলেও এদিন ছিলেন কিছুটা অগোছালো। তাতে নবম ওভারে এবাদত হোসেনকে বোলিংয়ে আনেন মুমিনুল।

লাথামের কাছে চার খেয়ে ওভার শুরু করেন ডানহাতি এই পেসার। পরের বলেই অবশ্য লাথামের থাই প্যাডে আঘাত হানেন এবাদতের বল। লেগ বিফোর উইকেটের আবেদন করার সঙ্গে সঙ্গে আউট দেন আম্পায়ার। যদিও লাথাম রিভিউ নিলে রিপ্লেতে দেখা যায় বলটি লেগ স্টাম্প মিস করেছে, তাতে বেঁচে যান কিউই অধিনায়ক।

একই ওভারের পঞ্চম বলে আবারও লাথামকে আউট দেন আম্পায়ার। এবারও রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান বাঁহাতি এই ব্যাটার। এরপর সতর্কতার সঙ্গে ব্যাটিং করেন কিউই দুই ওপেনার। প্রথম ১২ ওভারে ৩৪ রান তুললেও পরবর্তীতে রান তোলার গতি বাড়িয়ে দেন। ইয়ং ধীরগতির ব্যাটিং করলেও ৬৫ বলে হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন লাথাম। অধিনায়ক হিসেবে এটি তার প্রথম হাফ সেঞ্চুরি।

প্রথম সেশন শেষ হওয়ার একটু আগে তাসকিনের বলে লাথামের বিপক্ষে লেগ বিফোরের উইকেটের আবেদন করে বাংলাদেশ। তবে সাড়া দেননি আম্পায়ার। তবে রিভিউ নিতে গিয়ে দেরি করায় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারেনি টাইগাররা।

এদিকে একপ্রান্তে টম লাথাম ৮০ এর বেশি স্ট্রাইক রেটে খেললেও অন্যপ্রান্তে ধীরস্থির ইনিংস খেলেছেন উইল ইয়ং। কিউই এই ওপেনার মধ্যাহ্নভোজের বিরতির পর মেহেদী হাসান মিরাজকে মাথার ওপর দিয়ে উড়িয়ে চার মেরে ৯৮ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন। পানি পানের বিরতির ঠিক আগে এই ওপেনারকে ব্যক্তিগত ৫৪ রানে নিজের শিকার বানান শরিফুল ইসলাম। ড্রাইভ খেলতে গিয়ে পয়েন্টে নাইম শেখের হাতে ধরা পড়েছেন তিনি। ৬৫ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেয়া লাথাম সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ১৩৩ বলে। মেহেদী হাসান মিরাজের বল ডিপ স্কয়ারে ঠেলে দিয়ে এক রান নিয়ে ক্যারিয়ারের ১২তম সেঞ্চুরি উদযাপন করেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক।

ইয়ং ফিরে গেলেও কনওয়েকে নিয়ে কিউইদের রান সচল রেখেছেন অধিনায়ক লাথাম। এই দুজনের ব্যাটে ১ উইকেটে ২০২ রান করে চা পানের বিরতিতে যায় নিউজিল্যান্ড। চা বিরতির পর লাথাম ও কনওয়ে দুজনই হাত খুলে খেলেছেন। এবাদত হোসেনকে মিড উইকেট দিয়ে ফ্লিক করে চার মেরে ব্যক্তিগত দেড়শো রান পৌঁছান লাথাম। এই ইনিংস খেলার পথে ২৫টি চার মেরেছেন কিউই অধিনায়ক।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...