‘পার্বত্যে নিরাপত্তা, সেনাবাহিনীর ক্যাম্পগুলো দেওয়া হবে পুলিশকে’

পার্বত্য এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে সেনাবাহিনীর রেখে যাওয়া ক্যাম্পগুলো পুলিশকে দেওয়া হবে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, পার্বত্য এলাকায় নিরাপত্তার দায়িত্ব আমাদের। পার্বত্য চট্টগ্রামে মাঝে-মধ্যেই রক্তপাত হয়। এই রক্তপাতের জন্য ব্যবসা-বাণিজ্য থমকে যায়।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) রাজধানীর বেইলি রোডে শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স মিলনায়তনে পার্বত্য মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, খুব শিগগির পুলিশকে শক্তিশালী করবো। শান্তিচুক্তির কারণে সেনাবাহিনীর ফেলে আসা ক্যাম্পগুলো পুলিশ বাহিনীকে দেবো, যাতে তারা আপনাদের নিরাপত্তা দিতে পারে। আপনারা শান্তিতে থাকতে পারেন এবং আপনাদের ব্যবসা-বাণিজ্য, রাস্তাঘাট সবকিছু শান্তিময় হয়।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে রাজধানীর বেইলি রোড়ে শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্সে আজ থেকে শুরু হয়েছে পার্বত্য মেলা। চার দিনব্যাপী এ মেলা শেষ হবে আগামী ৮ জানুয়ারি। মেলায় পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর উৎপাদিত পণ্যসামগ্রীর প্রচার ও বিপণনের মাধ্যমে তাদের অর্থনৈতিক স্বনির্ভরতার লক্ষ্যে প্রতি বছরের মতো এবারও এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। প্রতিদিন বিকেল ৫টা থেকে পাবর্ত্য জেলা রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি জেলার শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় জানায়, পার্বত্য মেলায় ৯১টি স্টল থাকবে। স্টলগুলোর মধ্যে সরকারি প্রতিষ্ঠান, উন্নয়ন সহযোগী, প্রতিষ্ঠিত উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী, তিন পার্বত্য জেলায় উৎপাদিত কৃষি পণ্য সামগ্রী, হস্ত শিল্প, ঐতিহ্যবাহী কোমর তাঁতে বোনা পণ্য, ঐতিহ্যবাহী পার্বত্য খাবার দ্রব্য থাকছে।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...