৪৫৮ রানে থামলো বাংলাদেশ

এর আগে ৬ উইকেটে ৪০১ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে খানিকটা ধীরগতির শুরু করে বাংলাদেশ। তবে নিউজিল্যান্ডের পেসাররা মিরাজ এবং রাব্বির মনোবলে চিড় ধরাতে না পারায় দারুণ ব্যাটিং করে টাইগাররা। অনায়াসে ব্যাটিং করলেও দুবার আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিভিউ নিয়ে উইকেট বাঁচাতে হয়েছে মিরাজকে।

রাচিন রবীন্দ্রর বলে সুইপ করতে গিয়ে ব্যাটে-বলে করতে পারেননি ডানহাতি এই ব্যাটার। তাতে নিউজিল্যান্ডের আবেদনে মিরাজকে আউট দেন ক্রিস ব্রাউন। তবে সতীর্থ রাব্বির সঙ্গে কথা বলে রিভিউ নেন মিরাজ। পরবর্তীতে দেখা যায় বল ব্যাটে না লাগলেও গ্লাভস স্পর্শ করে যায়। তাতে বেঁচে যান তিনি।

৬ বল পর আরও একবার লেগ বিফোরের ফাঁদে মিরাজ। পেসার নেইল ওয়েগনারের ভেতরে ঢোকা বলে আবেদন করলে সোজাসাপ্টা আঙুল তুলেন ক্রিস গ্যাফানি। তবে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে রিভিউ নেন মিরাজ। বল প্যাডে লাগার আগে ব্যাটে লাগায় সেবার বেঁচে যান ডানহাতি এই ব্যাটার।

এরপর বেশ দেখেশুনে ব্যাটিং করেন মিরাজ এবং রাব্বি। এদিন সাদা পোশাকের ক্রিকেটে ১ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন মিরাজ। বাংলাদেশের ১৬তম ক্রিকেটার হিসেবে ১ হাজার রান করেছেন ডানহাতি এই ব্যাটার। সেই সঙ্গে সাকিব আল হাসান এবং মোহাম্মদ রফিকের পর তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে ১০০ উইকেটের সঙ্গে ১ হাজার করেছেন মিরাজ। এমন রেকর্ডের দিনের আক্ষেপে পুড়তে হয়েছে তাকে।

টিম সাউদির অফ স্টাম্পের বাইরের বল খেলতে গিয়ে উইকেট কিপার টম ব্লান্ডেলের হাতে ক্যাচ দিয়েছেন ৪৭ রান করা মিরাজ। তাতে ৪৩৩ বল পর উইকেটের দেখা পান পেসার সাউদি। এরপর মাটি কামড়ে উইকেটে পড়ে থাকা ইয়াসিরও আউট হয়েছেন ২৬ রানে। কাইল জেমিসনের বলে ব্লান্ডেলকে ক্যাচ দিয়েছেন ডানহাতি এই ব্যাটার।

রাব্বি ফেরার পর তাসকিন আহমেদকে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে পাঠান সাউদি। রিভিউ নিলেও শেষরক্ষা হয়নি তার। বাঁহাতি এই ব্যাটার করেছেন ১২ বলে ৫ রান। এদিকে ৭ রান করে ট্রেন্ট বোল্টের বলে শরিফুল ইসলাম আউট হলে ৪৫৮ রানে অল আউট হয় বাংলাদেশ। তাতে প্রথম ইনিংসে ১৩০ রানের লিড পায় মুমিনুলের দল।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...