আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে হাফিজের বিদায়

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন মোহাম্মদ হাফিজ। পাকিস্তানের জার্সির সঙ্গে তার ১৮ বছর সম্পর্ক চুকিয়ে ফেলেছেন পাকিস্তানের এই অলরাউন্ডার। তবে ঘরোয়া ও ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট চালিয়ে যাবেন তিনি।

২০০৩ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন হাফিজ। এরপর প্রায় দেড় যুগ তিন সংস্করণের ক্রিকেটেই পাকিস্তানকে সার্ভিস দিয়েছেন তিনি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলা ম্যাচটিই তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।

পাকিস্তানের জার্সিতে তাকে আর দেখা না গেলেও খেলবেন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ। পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) আগামী আসরে লাহোর ক্যালান্দার্সের হয়ে মাঠ মাতাতে দেখা যাবে ৪১ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডারকে।

হাফিজ পাকিস্তানের হয়ে ৫৫ টেস্টে প্রায় ৩৮ গড়ে করেছেন ৩৬৫২ রান। যেখানে ১২ হাফ সেঞ্চুরির ছাড়াও তার নামের পাশে আছে ১০টি সেঞ্চুরি। একই সঙ্গে সাদা পোশাকের ক্রিকেটে বল হাতে তিনি শিকার করেছেন ৫৩ উইকেট। ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি কার্যকরী ছিলেন এই অলরাউন্ডার। তিনি পাকিস্তানের হয়ে ২১৮ ম্যাচে রান করেছেন ছয় হাজার ৬১৪ রান। যেখানে তিনি প্রায় ৩৩ গড়ে ব্যাটিং করেছেন। একদিনের ক্রিকেটে ৩৮ হাফ সেঞ্চুরির পাশাপাশি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ১১টি। আর বল হাতে শিকার করেছেন ১৩৯ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত সংস্করণের ক্রিকেটে ব্যাটে-বলে সফল ছিলেন হাফিজ। তিনি পাকিস্তানের জার্সিতে ১১৯ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে প্রায় ২৬ গড়ে করেছেন ২৫১৪ রান। পাশাপাশি বল হাতে শিকার করেছেন ৬১ উইকেট।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...