মহাকাশ ভ্রমণে ব্যয় ৬০০ কোটি টাকা মাত্র!

পর্যটক হিসেবে বিভিন্ন স্থান ঘুরে বেরানোর সখ অনেকেরই৷ এর জন্য খরচের খাতাটাও খোলা রাখতে হয়৷ তবে ভ্রমণের জন্য শত কোটি টাকা খরচের ইতিহাস হয়তো খুব একটা নেই৷ জাপানের বিলিয়নিয়ার ইউসাকু মায়েযাভা কিন্তু সেটিই করেছেন৷ তবে তার ভ্রমণের জায়গা পৃথিবীর কোনো দর্শনীয় স্থান নয়৷ তিনি ঘুরে বেড়িয়েছেন মহাকাশ৷

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ১২ দিন কাটানোর পর সোমবার পৃথিবীতে ফিরে এসেছেন তিনি৷ আর এ ১২ দিনের ভ্রমণের জন্য তিনি খরচ করেছেন আনুমানিক ৬১৩ কোটি টাকা৷ নিজের ব্যক্তিগত সহকারি ও ফিল্ম প্রডিউসার ইয়োযো হিরানো এবং রাশিয়ান মহাকাশচারী আলেকজান্ডার মিসুরকিন-কে নিয়ে কাজাখস্তান থেকে মহাকাশের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন তিনি৷ ১২ দিনের সফর শেষে আবার কাজাখস্তানেই অবতরণ করেন৷

১২ দিনের এ সফরে কী কী করছেন সে বিষয়ে ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিছু ছবি এবং ভিডিও আপলোড করেছেন তিনি৷ এসব পোস্টে তিনি কীভাবে মহাকাশের ভরশূন্য অবস্থায় চা বানাতে হয় তা দেখাচ্ছিলেন৷ তাছাড়া মহাকাশ স্টেশনে অতিরিক্ত অন্তর্বাসের ঘাটতির বিষয়টিও আলোচনা করতে দেখা গেছে তাকে৷ সব মিলিয়ে প্রায় কয়েকশ কোটি টাকার এ ভ্রমণটি তিনি বেশ উপভোগ করেছেন বলা যায়৷

স্পেস স্টেশন থেকে এক লাইভ ইন্টারভিউতে ইউসাকু মায়েযাভা বলেন, ‘এমন চমৎকার অভিজ্ঞতা পাওয়া যে কতোটা মূল্যবান তা আপনি শুধু মাহাকাশে আসলেই বুঝতে পারবেন৷’

এদিকে ভ্রমণটিতে কী পরিমাণ টাকা খরচ হয়েছে এমন প্রশ্নের অবশ্য সরাসরি উত্তর দেননি ইউসাকু মায়েযাভা৷ তবে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ভ্রমণে মোট খরচ হয়েছে প্রায় ৬১৩ কোটি টাকা৷ টাকার অংকটি ঠিক কতো তা প্রকাশ করতে না চাইলেও ইউসাকু মায়েযাভা জানান, অংকটি অনেকটি এরকমই৷ প্রথমবারের ভ্রমণ শেষে এবার ২০২৩ সালে আবারো মহাকাশে যাওয়ার পরিকল্পনা তার৷ এবার লক্ষ্য চাঁদে যাওয়া৷ নিজের সাথে আরো আটজনকে নিয়ে যাওয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন এই ব্যবসায়ী৷

উল্লেখ্য, ফোর্বস ম্যাগাজিনের তথ্য অনুযায়ী, ইউসাকু মায়েযাভা ব্যক্তিগত সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় সাড়ে ষোল হাজার কোটি টাকা৷ সূত্র: ডিডাব্লিউ, এপি, এফপি, রয়টার্স

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...